kalerkantho


টিফিন আওয়ার

স্টেডিয়ামে স্কুল!

খেলায় খেলায় পড়াশোনা অনেকেই করে। কিন্তু আর্জেন্টিনা এক কাঠি এগিয়ে। সেখানে একটি স্কুল আছে, যেখানে ক্লাস হয় ফুটবল স্টেডিয়ামে! জানাচ্ছেন সজল সরকার

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০




স্টেডিয়ামে স্কুল!

কেমন হবে যদি ক্লাস করতে করতে ডি মারিয়ার ফুটবল ট্রিকসগুলোও দেখা যায়। টিভিতে নয়, একদম সরাসরি।

স্টেডিয়ামে বসেই! আর্জেন্টিনার রিভার প্লেট স্কুলে ভর্তি হলে এমনটা অসম্ভব নয়।

বুয়েনস এইরেস শহরের স্কুলটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৯৮ সালে। মূলত একটি খ্রিস্টান মিশনারি স্কুল ছিল এটি। দক্ষিণ আমেরিকার মিশনারিরা আর্জেন্টিনার প্যারানা নদীর তীরে বাস করত। তারা তখন ভাবল বসবাসের জন্য অন্য কাজও করা দরকার। আর কাজের জন্য চাই আরো শিক্ষা। সে চিন্তা থেকেই ১৮৯৮ সালে স্কুলটি বানায় তারা। ওই সময় স্কুলটি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্কুল হিসেবে পরিচিতি পায়, যার প্রথম শিক্ষক ছিলেন নেলসন টাউন।

আর্জেন্টিনার ফুটবল জোয়ারে বুয়েনস এইরেস হয়ে ওঠে ফুটবলের স্বর্গরাজ্য।

উনিশ শতকে ফুটবল নিয়ে মাতামাতির সময় এখানে ফুটবল ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেন রিভার প্লেট। সেই রিভার প্লেট ক্লাবটি পরে বড় ক্লাবে পরিণত হয় এবং বুয়েনস এইরেসে একটি দৃষ্টিনন্দন স্টেডিয়াম বানায়। ক্লাব ও স্টেডিয়ামের সঙ্গেই থেকে যায় রিভার প্লেট স্কুলটি।

স্টেডিয়ামে পড়াশোনা করতে শিক্ষার্থীদের কোনো অসুবিধা হয় না; বরং তারা বেশ মজা করেই বিশ্বের নামকরা ফুটবলারদের খেলা দেখতে দেখতে পড়ে। দুই হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী আছে এ স্কুলে। তারা বেশ মজা করেই সময় কাটায় স্টেডিয়ামে। কর্তৃপক্ষ মনে করে একাডেমিক কার্যক্রমের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা যে খেলাধুলার সঙ্গে সরাসরি জড়িত থাকতে পারে, তা-ই প্রতিফলন রিভার প্লেট স্কুল। একাডেমিক কার্যক্রম চলাকালেই স্টেডিয়ামে চলে বিশ্বের সেরা ফুটবলারদের চর্চা ও প্রশিক্ষণ।

স্কুলের সুনাম ছড়িয়ে পড়ার পর বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীই পড়তে আসে এখানে। ১৯৯০ সালে এ স্কুলটিতে স্নাতক পর্যায়ের পড়াশোনা যোগ হয়। এখন স্কুল-কলেজসহ প্রতিটি বিভাগই চালু আছে। শুধু স্কুল নয়, ফুটবল ক্লাবটিও নামকরা। আর্জেন্টিনার জাতীয় দলে এ পর্যন্ত ছয় জন ফুটবলার রিভার প্লেটের হয়ে খেলেছেন একসময়।


মন্তব্য