kalerkantho


কাজের সুযোগ ডেসকোতে

বেশ কিছু পদে লোক চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কম্পানি লিমিটেড (ডেসকো)। আবেদনের শেষ তারিখ ১৯ জুলাই। বিস্তারিত জানাচ্ছেন এম ফরহাদ

১১ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



কাজের সুযোগ ডেসকোতে

অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (টেকনিক্যাল), অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (অ্যাডমিন), সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (টেকনিক্যাল), জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (ফিন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস), অ্যাসিস্ট্যান্ট কেব্ল জয়েন্টার, অফিস অ্যাসিস্ট্যান্ট, সাবস্টেশন অ্যাটেনডেন্ট গ্রেড-২, ভেন্ডিং অপারেটর, মেশিন অপারেটর, অ্যাসিস্ট্যান্ট কমপ্লেন্ট সুপারভাইজার, অ্যাসিস্ট্যান্ট লাইনম্যান, রিসিপশনিস্ট, ইলেকট্রিশিয়ান, স্পেশাল গার্ড (কেপিআই), মিটার রিডার-কাম-বিল সার্ভার, মিটার অ্যাসেম্বলার (গ্রেড-২) ও ম্যাসেঞ্জার পদে লোকবল নেবে ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কম্পানি লিমিটেড (ডেসকো)। কোন পদে কতজন নেওয়া হবে ও আবেদনের যোগ্যতার বিস্তারিত পাওয়া যাবে বিজ্ঞপ্তিতে। বিজ্ঞপ্তিটি ছাপা হয়েছে ২৯ জুন কালের কণ্ঠে (১৯ পৃষ্ঠা)। এ ছাড়া বিজ্ঞপ্তিটি পাওয়া যাবে www.desco.org.bd/bangla/career_b.php লিংকে।

 

আবেদন যেভাবে

আবেদন করতে হবে অনলাইনে। ডেসকোর ওয়েবসাইটে (www.desco.org.bd) পাওয়া যাবে অনলাইন আবেদন ফরম ও ফরম পূরণের নির্দেশনা। নির্দেশনা অনুসারে প্রার্থীর স্ক্যান করা ছবি, স্বাক্ষর এবং সর্বশেষ পরীক্ষার সনদ ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে কোটার সনদের কপি আপলোড করতে হবে। অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (টেকনিক্যাল) থেকে জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (ফিন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস) পদ পর্যন্ত আবেদন ফি বাবদ এক হাজার ৫০০ টাকা এবং অন্য সব পদের জন্য এক হাজার টাকা ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের রকেট ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। আবেদন করা যাবে ১৯ জুলাই পর্যন্ত।

 

পরীক্ষা পদ্ধতি

ডেসকোর প্রধান কার্যালয়ের এইচআরএম শাখার (চলতি দায়িত্ব) উপমহাব্যবস্থাপক

মো. মামুনুর রশীদ জানান, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পাওয়া আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই করে যোগ্যদের তালিকা ও প্রবেশপত্র অনলাইনে দেওয়া হবে। প্রবেশপত্রে পরীক্ষার ধরন, সময়, স্থানসহ যাবতীয় তথ্য দেওয়া থাকবে। প্রার্থীরা ডেসকোর ওয়েবসাইট থেকে প্রবেশপত্র প্রিন্ট করে নিতে পারবেন। পরীক্ষা নেওয়া হবে তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে।

সব পদে যোগ্য প্রার্থী বাছাইয়ে লিখিত ও মৌখিক—এ দুই ধরনের পরীক্ষা নেওয়া হবে। মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে। এর মধ্যে ৮০ নম্বরের লিখিত এবং ২০ নম্বর থাকবে মৌখিক পরীক্ষায়। সব পদে নম্বর বিভাজন অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটিতে ২০, পদসংশ্লিষ্ট বিষয়ে ৪০, সাধারণ জ্ঞানে ২০, বাংলা, ইংরেজি ও পাওয়ার সেক্টর মিলে ২০ নম্বর থাকবে। ১০০ নম্বরকে ৮০তে কনভার্ট করে এমসিকিউ পদ্ধতির লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। পদভেদে করা হবে আলাদা প্রশ্ন। তবে নম্বর ও পরীক্ষা পদ্ধতি একই থাকবে। লিখিত পরীক্ষায় ন্যূনতম ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়ে পাস করলে মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে।

 

পরীক্ষার প্রস্তুতি

ডেসকো সূত্রে জানা যায়, নিয়োগ পরীক্ষায় পদসংশ্লিষ্ট বিষয়, অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটি, পাওয়ার সেক্টরের প্রাথমিক বিষয়, সাধারণ জ্ঞান এবং বাংলা ও ইংরেজি বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। তবে ইঞ্জিনিয়ারিং, অ্যাডমিন ও হিসাব শাখায় পদসংশ্লিষ্ট বিষয়েও প্রশ্ন করা হতে পারে। অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটিতে ভালো করার জন্য বাজারে বেশ কিছু বই পাওয়া যায়। এ ছাড়া নবম-দশম শ্রেণি ও এইচএসসির বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে ভালো ধারণা রাখতে হবে। টেকনিক্যাল পদে পদসংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রশ্ন আসবে। এ ছাড়া এসব পদে অষ্টম শ্রেণির বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে জোর দিতে হবে। বাজারে পদ অনুসারে বিভিন্ন প্রকাশনীর নিয়োগ বই পাওয়া যায়। এসব বইয়ে আগের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন দেওয়া থাকে। পুরনো প্রশ্নপত্র সমাধান করলে নিয়োগ পরীক্ষা সম্পর্কে ভালো ধারণা পাওয়া যাবে। বিষয়ভিত্তিক মৌলিক জ্ঞান থাকলে পরীক্ষায় ভালো করা যাবে।

 

বেতন-ভাতা

অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (টেকনিক্যাল), অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (অ্যাডমিন) পদে মূল বেতন ৫১০০০ টাকা। সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (টেকনিক্যাল), জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (ফিন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস) মূল বেতন ৩৯ হাজার টাকা। অ্যাসিস্ট্যান্ট কেব্ল জয়েন্টার পদে ২৫ হাজার টাকা, অফিস অ্যাসিস্ট্যান্ট, সাবস্টেশন অ্যাটেনডেন্ট গ্রেড-২, ভেন্ডিং অপারেটর, মেশিন অপারেটর, অ্যাসিস্ট্যান্ট কমপ্লেন্ট সুপারভাইজার পদ পর্যন্ত মূল বেতন ২৪ হাজার টাকা।

অ্যাসিস্ট্যান্ট লাইনম্যান, রিসিপশনিস্ট, ইলেকট্রিশিয়ান পদে ২৩ হাজার টাকা, স্পেশাল গার্ড (কেপিআই), মিটার রিডার-কাম-বিল সার্ভার পদে ১৮ হাজার টাকা, মিটার অ্যাসেম্বলার (গ্রেড-২) ১৭ হাজার টাকা এবং ম্যাসেঞ্জার পদে মূল বেতন ১৫ হাজার ৫০০ টাকাসহ অন্যান্য সুবিধা পাওয়া যাবে।



মন্তব্য