kalerkantho


সাজ

তিন বেলায় তিন রকম

ঈদের সাজে স্বতন্ত্র থাকুন নিজের স্টাইলে। নিজের পছন্দ, স্বাচ্ছন্দ্য আর রূপ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ মিলিয়ে সাজুন। সাজের পরামর্শ দিলেন রেড বিউটি স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন

২৭ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



তিন বেলায় তিন রকম

মডেল : বৃষ্টি, ছবি : কাকলী প্রধান

এই ঈদে মেয়েদের ঘরের ব্যস্ততা একটু বেশি থাকে। তাই আলাদা সময় করে সাজগোজের সুযোগ খুব একটা থাকে না।

এই ঈদেও গরমটা থাকছে। তাই ঈদের দিনের সাজটা তিন ভাগে ভাগ করে নিতে পারেন। সকালের সাজ হবে সাদামাটা। মেকআপ বলতে একেবারে হালকা। একটু বিবি ক্রিম, দাগ ঢাকতে কনসিলার আর পাউডারই যথেষ্ট বেইস মেকআপের জন্য। চোখের কোলে সকালেই কাজল না পরে শুধু ওপরের পাতায় পানিরোধক লাইনার ও মাশকারা দিন। এরপর যখন একটু ভারী মেকআপ করবেন, ততক্ষণে কাজল ছড়িয়ে সমস্যার সৃষ্টি করবে না। পোশাকের সঙ্গে মানিয়ে হালকা লিপস্টিক বা লিপগ্লস লাগিয়ে নিন।

দুপুরের পর থেকে রাত পর্যন্ত ঈদের মূল আয়োজন।

নিশ্চয়ই এ সময়ের মধ্যে পরবেন ঈদের প্রিয় পোশাকটি। পোশাকের সঙ্গে মানানসই সাজের ব্যাপারে আগে থেকেই ভেবে রাখুন।

ঈদের দিন দুপুরে সাজের ক্ষেত্রে ফাউন্ডেশনের সঙ্গে পাউডার মেখে  তারপর হালকা করে ব্লাশন বুলিয়ে নিন দুই গালে। ঠোঁটের সাজে পোশাকের বিপরীত কন্ট্রাস্ট লিপস্টিক বেছে নিন। চোখের সাজে ভিন্নতা আনতে শ্যাডো আর আইলাইনার দিন। পোশাকের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কানে আর গলায় ছোট গয়না পরুন। আইশ্যাডোর রং সঙ্গে ম্যাচ করতে পারেন, আবার কন্ট্রাস্টও করতে পারেন। চোখের পুরোটা পাতায় বেইস কালার করে নিন, তারপর অন্য কালারগুলো লাগান। চোখের ল্যাশের কোল ঘেঁষে পেনসিল আইলাইনারের টান, আবার আউটার কর্নারটাও একটু টেনে দিতে পারেন। লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁট এঁকে লিপস্টিক লাগিয়ে নিন।

রাতে আপনি ইচ্ছামতো সাজুন।   মুখে, গলায় ফাউন্ডেশন কমপ্যাক্ট পাউডার দিন। সাজ বেশি সময় স্থায়ী করতে স্পঞ্জ পানিতে ভিজিয়ে মুখে চেপে মেকআপ বসিয়ে নিন। চোখে মাশকারা, আইলাইনার এবং গাঢ় রঙের শ্যাডো দিন। রাতের সাজে শাড়ি খুব বেশি গর্জিয়াস হলে মেকআপটা পরিচ্ছন্ন ও উজ্জ্বল হবে। চোখের ইনার কর্নারে গোল্ড বা শিমারি পিংক আইশ্যাডো স্মাজ করে লাগিয়ে নিন। তবে ব্লাশনের রং বেশি উজ্জ্বল না হওয়াই ভালো। গাঢ় রঙের লিপস্টিক রাতের সাজের জন্য বেশি মানানসই হবে।

চুল বাঁধবেন, নাকি ছেড়ে রাখবেন সেটার ভার আপনার ওপর রইল। চুলের সাজে মেসি লুক যেমন চলছে, তেমনি নানা এক্সেসরিজ যোগ করে নানা ধরনের বেণি করে নতুনত্ব আনা হচ্ছে। তবে চুলে স্টাইল করার আগে চুল হালকা ভিজিয়ে লিভ-অন কন্ডিশনার দিন। এরপর হিট-প্রটেক্টও স্প্রে করে নিন, যাতে স্টাইলারের উচ্চ তাপে চুলের ক্ষতি না হয়। সব শেষে সেটিং স্প্রে দিয়ে চুল ঠিক করুন।


মন্তব্য