kalerkantho

অফলাইন

১০ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



অফলাইন

জার্সি

চাকরির জন্য ফরমাল ড্রেস পরিধান না করে আর্জেন্টিনার জার্সি পরিধান করুন! চাকরি পাবেন, নিশ্চিত! কারণ কর্তৃপক্ষ আপনাকে দেখেই বুঝবে, আপনি খুব ধৈর্যশীল। তাই কম্পানির খারাপ সময়ে আপনি ছেড়ে যাবেন না, পাশে থাকবেন।

তানভীর আহাম্মেদ

কোথায়

একজন জিগাইল, কোথায়?

কইলাম, বনানী কবরস্থানে আছি। চরম জ্যামে পড়ছি।

সে কয়, তুই মইরাও শান্তি পাইলি না।

তানভীর মাহমুদুল হাসান

ইচ্ছা

ইচ্ছা করতাছে সবগুলা মশাকে মশারির ভিত্রে ঢুকাইয়া আমি বাইরে ঘুমাই।

আরিফুল ইসলাম শ্রাবণ

 

সিঙ্গেল

আমি এতটাই সিঙ্গেল যে আমার ডুয়াল সিমের ফোনেও সিঙ্গেল সিম।

রাজ আরজেড

 

বুয়া

ম্যাম সাহেবা : কী ব্যাপার বুয়া, তুমি গতকাল কাজে আসোনি কেন?

বুয়া : না, দেখলাম, স্যার ফেসবুকে স্টেটাস দিছে—ফিলিং লাভ, আর আপনিও তাতে লাভ ইমো দিছেন।

ম্যাম সাহেবা : তাতে তোমার কী? তুমি আসো নাই কেন?

বুয়া : এমনিতে ছুটির দিন আর তার মাঝে দুজনই ভালোবাসার মুডে আছেন। ভাবলাম ডিস্টার্ব করা ঠিক হবে না, তাই আসিনি।

কানন শূন্য

 

বন্ধুত্ব

কিপটেমির জন্য কুখ্যাত এক লোক স্ত্রীর অনেক পীড়াপীড়িতে তাকে নিয়ে বেড়াতে বের হয়েছে। কিন্তু দেখা গেল, সেটি আদপে এক শ্মশানঘাট।

স্ত্রী : এ কোথায় নিয়ে এলে তুমি আমায়! তোমার মাথা খারাপ হয়নি তো!

স্বামী : কেন কেন?

স্ত্রী : এখানে কেউ বেড়াতে আসে? এটা তো শ্মশানঘাট!

স্বামী : আরে পাগলি, এখানে আসার জন্য লোকজনকে মরতে হয়। আর তুমি-আমি তো জ্যান্তই এসেছি। কম উত্তেজনার ভেবেছ বিষয়টা!

হাসান মোরশেদ

নিউজ

সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ে নামছে দেখে এক জুনিয়রকে বললাম, ছোট করে নিউজটা লেখো। এক লাইন লেখার পর চিত্কার দিয়ে বলে—ভাই, দুইটা গেছে।

বললাম—ঠিক আছে, ওটা নিয়েই লেখো।

আমার কথা শেষ হওয়ার আগেই বলল—

...ভাই, আরেকটা।

কও কী... দেখি তো!

... ভাই আরেকটা...আরেকটা...

একপর্যায়ে বিরক্ত হয়ে বলল—বায়েজিদ ভাই, আমি পারুম না। আপনি লেখেন।

ভিনদেশি বিশ্বকাপ থেকে এই জাতির দৃষ্টি ফেরানোর জন্য এমন কিছুই দরকার ছিল। ক্রিকেটাররা সেটাই করেছে।

আহমেদ বায়েজিদ

পরামর্শ

ইয়া মোটা এক ছেলেকে ডাক্তারে কয়—এই,

নিয়মিত খেলবে, তবে দেখবে ভুঁড়ি নেই।

 

কয়েক দিন পরে সেই ছেলেটা চেম্বারে ফের ছোটে,

জানায়, কত খেলল, তবু পেট কমেনি মোটে!

 

কী কী খেলা খেলেছিলে? বলো দেখি বাবা।

মোবাইলে গেম খেলেছি আর মাঝেমধ্যে দাবা।

সন্দীপন বসু

কেয়ারটেকার

গার্লফ্রেন্ডদের বেশি কেয়ার করি বলে তারা এখন আমাকে কেয়ারটেকার ভাবে!

ফজলুল হক সাকি

 

ডাক্তার বলেছে ঘাসের উপড় হাটতে। অতপর...

 

করি মোরা ফেস্ট

পারি না টি-২০, পারি না টেস্ট

দু-একটা ওডিআই জিতে, করি মোরা ফেস্ট। উফফ! আমারই তো বেস্ট!!

শোভন শুভ

 

গড়াগড়ি

একজন বলল—ভাই, নেইমারের পড়াপড়ি আর গড়াগড়ি নিয়ে খুব সমালোচনা হচ্ছে।

বললাম, হুম! সম্ভবত উনি এবার ‘সমালোচক’ ক্যাটাগরিতে অস্কার জেতার ধান্দায় আছেন।

হাসান জাকির

 

এক অভিজাত সিনেমা হলে শো চলছে। হলের ম্যানেজার তাঁর রুমে বসে আছেন। হঠাৎ ম্যানেজারের রুম সশব্দে খুলে ভেতরে পিস্তল হাতে উদ্ধত এক মহিলা ঢুকলেন। তিনি ম্যানেজারের বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে বললেন, আমার স্বামী অন্য এক মহিলাকে নিয়ে সিনেমা হলে সিনেমা দেখছে বলে নিশ্চিত হয়েছি। এখন শো থেকে আমার স্বামীকে বের করুন, না হলে আপনার খেল খতম। ম্যানেজার ভয়ে শো বন্ধ করে মাইকে ঘোষণা দিলেন, যিনি স্ত্রী ছাড়া অন্য মহিলাকে নিয়ে সিনেমা দেখছেন, তিনি দয়া করে বের হন। সঙ্গে সঙ্গে হলের অর্ধেক ফাঁকা হয়ে গেল।

চঞ্চল ভৌমিক

 

 

 

ঝগড়া

মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস আর তাঁর স্ত্রী মেলিন্ডা যদি ঝগড়া করতেন, তাহলে কেমন হতো!

মেলিন্ডা : কী ঘোড়ার ডিমের অপারেটিং সিস্টেম বানাইছ এইটা?

বিল গেটস : কী হইছে?

মেলিন্ডা : খালি হ্যাং করে ক্যান? দুই ঘণ্টা ধরে পিসি স্টার্ট দেওয়ার ট্রাই করতেছি, হইতেছে না।

বিল গেটস : কী বলতেছ এইগুলা?

মেলিন্ডা : কেন, সত্য কথা সহ্য হয় না?

বিল গেটস : তোমার সমস্যা কী, মেলিন্ডা?

মেলিন্ডা : সমস্যা আমার না, সমস্যা তোমার উইন্ডোজের।

বিল গেটস : মুখ সামলে কথা বলো...!

মেলিন্ডা : ক্যান, না সামলাইলে কী করবা, হুহ? তিন বছর অ্যাপলের আইফোন ইউজ করি। হ্যাং হইছে কখনো? হয় নাই। দুই বছর গুগলের অ্যানড্রয়েড ফোন ইউজ করি। হ্যাং করছে কখনো? করে নাই। সব সমস্যা তোমার উইন্ডোজে। মোবাইলটা তো ইউজ করতে পারলামই না। পিসিও ফালায় দেওয়ার টাইম হইছে।

বিল গেটস : চুপ করো মেলিন্ডা।

মেলিন্ডা : তুমি চুপ করো। একটা ভালো উইন্ডোজ বানাইতে পারলা না, ক্যান বিয়ে করছিলা আমারে? বাপের বাড়িতে আমি মুখ দেখাইতে পারি না। ক্যান, আমার জীবনটা ধ্বংস করে দিলা?

শাহবাজ এক্স বাধন

 

 



মন্তব্য