kalerkantho


আত্মজীবনীর জ্বালা

তারকাদের আত্মজীবনীর মানেই যেন ঘুমন্ত আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণ। বলিউড অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর ক্ষেত্রেও তা-ই হয়েছিল। তাঁর বই ‘অ্যান অর্ডিনারি ম্যান’ নিয়ে পরিস্থিতি এতটাই উত্তাল হয় যে ক্ষমা চেয়ে সেটার প্রকাশ পর্যন্ত বাতিল করতে বাধ্য হয়েছেন অভিনেতা। হলিউড-বলিউডে আত্মজীবনী বিতর্ক নিয়ে লিখেছেন নাসরিন হক

৯ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



আত্মজীবনীর জ্বালা

খুল্লম খুল্লা, ঋষি কাপুর

তাঁর টুইটের প্রতিটি লাইন যেখানে বিতর্কের ঝড় তোলে, সেখানে গোটা আত্মজীবনী! ঋষি কাপুরের বই নিয়ে বিতর্ক অনুমিতই ছিল। ‘খুল্লম খুল্লা’ নিয়ে তা হয়েছেও।

ঋষির বাবা রাজ কাপুরের সঙ্গে নার্গিস ও বৈজয়ন্তীমালার বহুল চর্চিত সম্পর্ক নিয়ে বইতে লিখেছেন তিনি, ‘নার্গিসজির সঙ্গে বাবার প্রেমের সময় আমি খুব ছোট। কাজেই তা নিয়ে বিব্রত হওয়ার মতো বয়স হয়নি। কিন্তু যখন দেখতাম বাবা বৈজয়ন্তীমালার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হচ্ছেন বা হয়েছেন, তখন মাকে নিয়ে মেরিন ড্রাইভের নটরাজ হোটেলে উঠতাম। এরপর চিত্রকূটে একটা অ্যাপার্টমেন্ট আমাদের জন্য কিনে দিয়েছিলেন বাবা। কিন্তু কোনো দিন মা আর আমাকে বাড়িতে ফেরাতে পারেনি, যত দিন না বৈজয়ন্তীমালার সঙ্গে সম্পর্ক শেষ হয়। ’ এত দিন ধরে রাজ কাপুরের বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে নানা আলোচনা ছিল, কিন্তু খোদ তাঁরই ছেলের মুখে এমন অকপট স্বীকারোক্তির পর অনেক দিন আলোচনা হয় ‘খুল্লম খুল্লা’ নিয়ে।

দ্য সাবস্ট্যান্স অ্যান্ড দ্য শ্যাডো, দিলীপ কুমার

‘আমাকে স্বীকার করতেই হচ্ছে যে সহ-অভিনেতা হিসেবে তো বটেই, একটি মেয়ের মধ্যে যে যে গুণ আমি খুঁজেছি, তার সব কটা তার মধ্যে পেয়েছি। কাজেই দুইভাবেই আমি ওর প্রতি আকৃষ্ট হয়েছিলাম,’ মধুবালা সম্পর্কে খোদ দিলীপ কুমারের এমন বক্তব্যের পর বিতর্ক না হয়ে উপায় কী। কারণ দশকের পর দশক ধরে হাজারবার প্রশ্ন করা হলেও মধুবালার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে বরাবরই চুপ থেকে গেছেন অভিনেতা।

রোমান্সিং উইথ লাইফ, দেব আনন্দ

বলিউড সিনেমাপাড়ার রসালো সব গুজবে ভর্তি দেব আনন্দের বই। ‘সত্যম শিবম সুন্দরম’-এ রাজ কাপুর জিনাত আমানকে নেওয়ায় খুব দুঃখ পেয়েছিলেন অভিনেতা, ‘সন্দেহ দানা বাঁধছিল। কারণ দিন দুয়েক আগেই রাজের স্টুডিওতে স্ক্রিন টেস্ট দিতে গিয়েছিল জিনাত। দেখলাম গুজব সত্য। আমার হূদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। ’ সেই সময় জিনাতের প্রেমে পাগল ছিলেন দেব। অন্যের সঙ্গে ছবি করায় খুব দুঃখ পেয়েছিলেন বেচারা!

অ্যান আনস্যুটেবল বয়, করণ জোহর

‘কফি উইথ করণ’-এ তারকাদের গোপন কথা বের করে আনেন করণ জোহর। নিজের বই ‘অ্যান আনস্যুটেবল বয়’-এ তিনি বলেছেন নিজের অজানা কথা। তাঁর প্রথম যৌন অভিজ্ঞতা থেকে শুরু করে সম্পর্ক নিয়ে খোলামেলা বয়ান দিয়েছেন পরিচালক।

অ্যানইউজুয়াল : মেমোয়ার অব আ গার্ল হু কেম ব্যাক ফ্রম দ্য ডেড, অণু আগারওয়াল

অণু আগারওয়াল মানে সেই ‘আশিকি’র নায়িকা, যিনি তুমুল জনপ্রিয়তার মধ্যেই হঠাত্ উধাও হয়ে যান, যাঁকে নিয়ে নানা কৌতূহল ছিল ভক্তদের মনে। তাঁর আত্মজীবনীও তাই ঝড় তুলেছিল যথারীতি। অভিনেত্রীও বইতে সে জন্য প্রয়োজনীয় ‘মসলা’ যোগ করেছিলেন। বইয়ের শুরুতেই তাঁর বয়ান পাঠকদের টেনে নিয়ে যাওয়ার জন্য যথেস্ট ছিল, ‘উত্তরাখণ্ডের এক যোগ আশ্রমে নাম লিখিয়েছিলাম। আশ্রমের প্রধান স্বামীর সঙ্গে তান্ত্রিকভাবে শারীরিক সম্পর্কের সময় সাধনার অনেক উঁচু স্তরে চলে যাই। এরপর সন্ন্যাস নিয়ে ঘুরে বেড়াই দেশের নানা প্রান্তে। ’ এমন বয়ানের পর বইয়ের বিক্রি যে দারুণ হয়েছিল,   বলাই বাহুল্য।

অ্যান আনঅথরাইজড বায়োগ্রাফি টম ক্রুজ

এটা ঠিক আত্মজীবনী নয়, তাঁকে নিয়ে লেখা বই। ২০০৮ সালে অ্যান্ডু মর্টনের এ বই প্রকাশের পর রীতিমতো হৈচৈ পড়ে যায়। টম ক্রুজ নিজে পড়েন সবচেয়ে বিপদে। কারণ বইতে দাবি করা হয়, অভিনেতার মেয়ে সুরি আদৌ তাঁর      ঔরসজাত নয়!

লিটল গার্ল লস্ট ড্রিউ ব্যারিমোর

মাত্র ১০ বছর বয়সে সিগারেট, ১২ বছর বয়সে রিহ্যাব, এরপর আত্মহত্যার চেষ্টা—জীবনে নানা উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে গেছেন ড্রিউ ব্যারিমোর। অভিনয় থেকে দূরে সরে গেছেন, আবার ফিরেও এসেছেন। তাঁর ‘বর্ণিল’ জীবনের অকপট বয়ান ‘লিটল    গার্ল লস্ট’।

অ্যান অর্ডিনারি ম্যান নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী

‘মিস লাভলি’ সহকর্মী নীহারিকা সিংহের সঙ্গে প্রেম ছিল নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর। এইটুকু বললে তো হতোই, কিন্তু নওয়াজ বইতে শুধু এতেই থেমে থাকেননি, খোলামেলা বর্ণনা দিয়েছেন নীহারিকার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের। ব্যস, বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে ফুঁসে উঠেছেন অভিনেত্রী। জানিয়েছেন, অল্প সময়ের জন্য নওয়াজের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল, এর বেশি কিছু নয়। এমনকি নওয়াজ বিবাহিত জানলে সম্পর্কেও জড়াতেন না। শুধু নীহারিকা নন, বই নিয়ে আপত্তি তোলেন নওয়াজের আরেক সাবেক সুনিতা রাজওয়ারও। ফল, সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে ‘অ্যান অর্ডিনারি ম্যান’ প্রত্যাহার করে নেন অভিনেতা।


মন্তব্য