kalerkantho

শিশুর রঙিলা বৈশাখ

শৈশবের বৈশাখ

নাঈম সিনহা   

৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



শৈশবের বৈশাখ

বড়দের চেয়ে শিশুদের জীবনটাই রঙিন বেশি। বৈশাখেও তার ব্যতিক্রম নয়। রঙিন পোশাকে শিশুদের বিচরণে মুখরিত হয় বৈশাখী আয়োজন। পহেলা বৈশাখকে ঘিরে ফ্যাশন হাউসগুলোতেও শিশুদের জন্য আনা হয়েছে নতুন নকশার শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, স্কার্ট-টপস, পাঞ্জাবি, ফতুয়া, ধুতি, শার্ট ও টি-শার্ট।

সাদা-কালো রঙে বৈশাখের বিভিন্ন দেশীয় মোটিফ নিয়ে শিশুদের পোশাক ডিজাইন করেছে ফ্যাশন হাউস   সাদা-কালো। সাদা-কালোর ডিজাইনার তাহসিনা শাহীন বলেন, ‘প্রতিবছরই বৈশাখ ঘিরে সাদা-কালোর থাকে আলাদা আয়োজন। শিশুদের জন্য আমরা আলাদা করে পোশাক ডিজাইন করি না। আমাদের প্রতিটি পোশাক বড় থেকে শিশু—সব সাইজের হয়ে থাকে। বৈশাখ নিয়ে রয়েছে নতুন ডিজাইনের পাঞ্জাবি ও কামিজ। পোশাক নকশায় প্রাধান্য পেয়েছে ফুল, পাখি, মাছ, গাছসহ বিভিন্ন দেশীয় মোটিফ।’

বিশ্বরঙের ডিজাইনার বিপ্লব সাহা জানান, বাচ্চাদের কথা মাথায় রেখে আলাদাভাবে পোশাক নকশা করে বিশ্বরঙ। থাকছে মা-বাবার পোশাকের সঙ্গে মিল রেখে নকশা করা শিশুদের পোশাকও। বিশ্বরঙ শিশুদের  বৈশাখী পোশাকে লাল-সাদা বাদেও হলুদ, সবুজ, বিভিন্ন উজ্জ্বল রং ব্যবহার করেছে। রয়েছে তৈরি করা ধুতি-পায়জামাও।

কে ক্রাফটের বাচ্চাদের পোশাকে ব্যবহার করা হয়েছে উজ্জ্বল রং ও ফ্লোরাল মোটিফ। বেশি ব্যবহার করা হয়েছে আরামদায়ক সুতি কাপড়, সিল্ক, এমনকি শিফনও। এমনটাই জানালেন কে ক্রাফটের ডিজাইনার নাদিরা ফেরদৌস। তিনি বলেন, ‘অভিভাবকরা অনেকেই বাচ্চাদেরকে বড়দের মতো করে সাজাতে পছন্দ করে, যেমন—সালোয়ার-কামিজ ও শাড়িতে। সে কথা মাথায় রেখে আমরা ছোট বাচ্চাদের জন্য সেলাই করা রেডি শাড়ি করি, যা অনেকটা স্কার্টের মতো, সঙ্গে থাকে রেডিমেড ব্লাউজও। চাহিদা থাকায় বৈশাখে লেহেঙ্গা, স্কার্ট ও ঘাগড়াও রাখা হয়েছে।

 

 

 

 

 

ছেলেদের জন্য রয়েছে পাঞ্জাবি, ফতুয়া ও শার্ট। এ ছাড়া নবজাতকদের জন্য     পাঞ্জাবি-পায়জামার সেট রয়েছে।’

নিত্য উপহারের স্বত্বাধিকারী বাহার রহমান বলেন, ‘শিশুদের বৈশাখের পোশাক আমরা মূলত টি-শার্ট করি।

লোকজ বিভিন্ন বিষয় মাথায় রেখে এসব টি-শার্টের ডিজাইন করা হয়, যাতে পোশাকে বাঙালিয়ানা ফুটে ওঠে। এসংক্রান্ত বিভিন্ন কবিতা ও গানকে পোশাকের সঙ্গে সংযুক্ত করা হয়।’

ফ্যাশন হাউস আমব্রেলার ফ্যাশন ডিজাইনার উপদেষ্টা এমদাদ হক বলেন, ‘শিশুদের বৈশাখের পোশাকে বর্ণিল রং ব্যবহারের দিকেই বেশি গুরুত্ব দিই আমরা, যাতে বাঙালির সর্বজনীন উত্সবের আমেজ শিশুদেরও ছুঁয়ে যায়। লালসহ বিভিন্ন রঙের বৈশাখের ফ্রক-কামিজ ডিজাইন করেছে আমব্রেলা। ডিজাইন যা-ই করা হোক, স্বাচ্ছন্দ্যের কথা মাথায় রেখে সুতি কাপড় ব্যবহার করা হয়েছে, যাতে পোশাক পরলে আরাম লাগে।’

 

মডেল : আরিশা, মিফতা, জায়ান,

পোশাক : সাদা-কালো, কে ক্রাফট, বিশ্বরঙ

সাজ : পারসোনা

ছবি : মোহাম্মদ আসাদ


মন্তব্য