kalerkantho


আঁকা শিখি

জলরঙে সবুজ গাছ

১১ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



জলরঙে সবুজ গাছ

জলরং বেশ ভাবালু, মানে ভাবনায় ঢুলু ঢুলু করে দেয়। আর জলরঙে ছবি আঁকার কিন্তু এখনই ভালো সময়।

কেন? চারদিকে শুধু বৃষ্টি আর বৃষ্টি। বর্ষার রূপ উপভোগ করার সময়। এ সময়টাতেই গাছ তার সবুজের পেখম মেলে দেয়। আশপাশের প্রকৃতিও যেন মেলে ধরে কোমল রঙের ডালি। আর দেরি না করে জলরং নিয়ে বসে যাই ঝটপট।

প্রথমে গাছ দেখো। গাছ মানেই কিন্তু শুধু একটি সবুজ নয়। গাছে আছে নানা ধরনের সবুজ। কালচে সবুজ, হলুদাভ সবুজ, কমলা, লাল, আবার গাছ যে পরিবেশে থাকে তারও একটা রং থাকে।

ভাবছ, কী আবোলতাবোল কথা বলছি? বাইরের কোনো একটি গাছের দিকে ঠায় তাকিয়ে থাকলেই বেরিয়ে আসবে রংগুলো। পরীক্ষাটা করেই দেখো।
জলরঙের ছবি আঁকা খানিকটা দ্রুত শেষ করতে হয়। তাই প্রথমে কালার প্যালেটে যে রংগুলো গাছে আছে, সেগুলোর প্রতিটা পানি দিয়ে গুলিয়ে নাও। সবুজের সঙ্গে খানিকটা কালো মিশিয়ে কালচে সবুজ বানাও। এরপর কলাপাতা সবুজ নাও। তারপর উজ্জ্বল হলুদও মেশাতে পারো।   জলরং ছবি আঁকার উপযোগী কার্টিজ পেপার লাগবে। হাতে বানানো (হ্যান্ডমেইড) কাগজ হলেই বেশি ভালো। তাতে জলরঙের আনন্দ পুরোপুরি পাওয়া যায়।
এবার কাগজে গাছের হালকা ড্রইং করে নিতে হবে। জলরং তিন ধাপে শেষ করতে হয়। প্রথম ওয়াশে (মানে হালকা প্রলেপ) কাজ এগিয়ে রাখলে ভালো। এবার সবুজ রং যে যে জায়গায় আছে সে জায়গাগুলোতে রং বসাও। কিছুক্ষণ শুকানোর জন্য অপেক্ষা করতে হবে। একেবারে শুকানো যাবে না। এরপর গাছের ডালপালা ২-৩ নম্বর তুলি দিয়ে আঁকতে হবে। গাছের কিছু কিছু পাতা বের করতে হবে ধাপে ধাপে। গাছের মাঝেমধ্যেই দেখবে অন্ধকার থাকে। সেসব জায়গায় তুলির হালকা পরশে কালচে সবুজ বসাও। এবার গাছের আশপাশে বসিয়ে দিতে পারো পরিবেশের নীলাভ কিংবা হালকা হলুদ রং।
শুরুতে কাগজটা পানি দিয়ে সামান্য ভিজিয়ে নিলে ভালো। কাগজ ভেজাতে ফোমের সাহায্য নাও। ভেজা অবস্থায় কালার প্যালেটে রং গোলাও। মোটা তুলি দিয়ে প্রথম ওয়াশ দিতে হয়।
প্রথমে কলাপাতা সবুজ রং দাও। ওটা শুকানোর পর সামান্য ভেজা থাকতেই বসাও গাঢ় সবুজ। গাছের ভেতরে এদিক-ওদিক চিকন ডাল বসাতে হবে। ওটা বসাও গাঢ় কালচে সবুজ রং দিয়ে। জিরো সাইজের তুলি দিয়ে চাইলে গাছের কাণ্ড ও ডালের একপাশে (যেদিকে সূর্য আছে) উজ্জ্বল হলুদ বসাতে পারো সাবধানে।
শিল্পী অনিমেষ মজুমদারের জলরঙে আঁকা ছবিটা দেখে দেখে চালিয়ে যেতে পারো প্রাকটিস। ভালো করে তাকিয়ে দেখো, বামের তালগাছে গাঢ় সবুজের ওপর সূর্যের আলো পড়ায় সেখানে কলাপাতা সবুজ ও হলুদের মিশেল ঘটানো হয়েছে। গাছের গুঁড়ির বামে দেওয়া হয়েছে আলোর হাইলাইটস। তারপর ছায়ার কারুকাজ। দেয়ালের ওপাশের তালগাছের ঝোপের মাঝ বরাবর দেওয়া হয়েছে অন্ধকার। বসানো হয়েছে কালচে সবুজ রং। তারপর উজ্জ্বল সবুজ ও হলুদ। আগেই দেওয়া হয়েছে গোলাপি আকাশ ও নীলচে গাছের আবছা ওয়াশ। ওটার কারণেই দেখবে, লাল রঙের বাড়িটা কেমন চকচক করছে।

ফারাহ নাজ মুন


মন্তব্য