logo
আপডেট : ১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ১১:৪১
অভ্যূত্থানের অভিযোগ অস্বীকার জিম্বাবুয়ে সেনাবাহিনীর

অভ্যূত্থানের অভিযোগ অস্বীকার জিম্বাবুয়ে সেনাবাহিনীর

জিম্বাবুয়েতে সেনা অভ্যূত্থানের অভিযোগ অস্বীকার করে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে দেশটির এক সামরিক কর্মকর্তা বলেছেন, সেনা অভ্যূত্থান নয়, প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের চারপাশে যেসব দুর্নীতিবাজ রয়েছে তাদের নির্মূলে আমরা অভিযান পরিচালনা করছি। ভাষণে জেনারেল পদমর্যাদার ওই কর্মকর্তা বলেন, আমরা জাতিকে নিশ্চিত করতে চাই, প্রেসিডেন্ট মুগাবে ও তার স্ত্রী সুস্থ আছেন, তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। আমরা তার চারপাশে থাকা দুর্নীতিবাজদের দিকে লক্ষ্য রাখছি, যারা বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত…। যত দ্রুত আমরা অভিযান শেষ করতে পারব, তত দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

এর আগে মঙ্গলবার দেশটির রাজধানী হারারের সড়কে সেনাবাহিনীর অন্তত চারটি ট্যাংক দেখা যায়। সোমবার জিম্বাবুয়ের সেনাপ্রধান জেনারেল কনস্ট্যান্টিনো চুইঙ্গা বলেছিলেন, সংকট সমাধানে হস্তক্ষেপে প্রস্তুত সেনাবাহিনী। পরে বিষয়টিকে রাজনীতিতে হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনে সেনাপ্রধানকে সতর্ক করা হয় প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের পক্ষ থেকে। গত সপ্তাহে দেশটির তথ্যমন্ত্রী সিমন খায়া মোয়ো সংবাদমাধ্যমকে জানান, মুগাবের স্ত্রী গ্রেস সম্প্রতি ভাইস প্রেসিডেন্টকে অপসারণের জন্য আহ্বান জানান। যা তার স্বামী কার্যকর করেছেন।

অভিযোগ করে বলা হয়, ৭৫ বছর বয়সী এমারসন নানগাগবা দায়দায়িত্বের ব্যাপারে অসঙ্গতিপূর্ণ আচরণ করছিলেন। অবাধ্যতার নিদর্শনে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। যদিও রাষ্ট্র ক্ষমতার উত্তরসূরী ভাবা হচ্ছিলো সাবেক গোয়েন্দা প্রধান নানগাগবাকে। এরপরই দেশটির পরিস্থিতি উত্ত্যক্ত হয়ে ওঠে। বিভিন্ন মহলে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। সবশেষ সেনাপ্রধানও কথা বললেন এ ইস্যুতে। দীর্ঘ ৩০ বছরের প্রেসিডেন্ট ৯৩ বছর বয়সী মুগাবে। তার স্ত্রী ৫২ বছর বয়সী গ্রেসও রাজনীতির ময়দানে। এক রক্ষক্ষয়ী গৃহযুদ্ধের পর ১৯৮০ সালে সাদাদের শাসন শেষ হওয়ার পর থেকে মুগাবে শাসন করে আসছেন। আফ্রিকার দেশটিতে আগামী বছর ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

 

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com