logo
আপডেট : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২৩:৩২
২ ঘণ্টাতেই শেষ ইংল্যান্ড

২ ঘণ্টাতেই শেষ ইংল্যান্ড

দিন-রাতের টেস্টে ‘নাইট টিকিট’ বলে একধরনের টিকিট চালু আছে। সেটা হলো টেস্টের শুধু শেষ সেশন, অর্থাৎ সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৯টা পর্যন্ত সময়ে ম্যাচ দেখার সুযোগ। মূলত অফিসফেরত দর্শকের জন্যই এ ব্যবস্থা। অ্যাডিলেডে রোমাঞ্চকর সমাপ্তির অপেক্ষায় যারা ভেবেছিল নাইট টিকিট কেটে মাঠে ঢুকবে, তাদের হতাশই করেছেন জশ হ্যাজেলউড। পঞ্চম দিনের ১৭ বলের মধ্যেই বুঝিয়ে দিয়েছেন, দিনের প্রথম দু ঘণ্টার বেশি আয়ু নেই ম্যাগিলান অ্যাশেজ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের। অপরাজিত জো রুট, ড্রেসিংরুমে বসে থাকা মঈন আলী আর জনি বেয়ারস্টোকে নিয়ে স্বপ্নের জাল বুনে চলা রাতটা পেরোবার পর, স্বপ্নভঙ্গ এক নিমিষেই।

হাতে ৬ উইকেট, শেষ দিনে করতে হবে ১৭৮ রান। এই ছিল ইংল্যান্ডের জয়ের সমীকরণ। ৬২ ওভারের পুরনো গোলাপি বলটা হাতে নিয়ে দুপুর রোদে করা দ্বিতীয় ডেলিভারিতেই স্টাম্পের পেছনে ক্যাচ দিলেন ক্রিস ওকস। রিভিউ নিলেন ওকস, কিস্তু স্নিকোমিটারে এলো স্পষ্ট আওয়াজ! পরের ওভারটা মিচেল স্টার্কের, এরপর ফের বল হাতে নিয়েই হ্যাজেলউড উপড়ে ফেললেন জো রুট নামের পথের কাঁটা। এবারও উইকেটের পেছনে ক্যাচ, তবে রুট আর রিভিউ নেননি। ৬৭ রানে পরশু হোটেলে ফিরেছিলেন, কালও ড্রেসিংরুমে ফিরলেন সেই ৬৭ রানেই। তবে এবার আর পাশে অপরাজিতটা নেই! ২ রান করে নাথান লিওনের বলে লেগ বিফোর উইকেট হয়ে ফিরে গেলেন মঈন আলী, ওভারটনকেও এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলেন স্টার্ক, এরপর স্টুয়ার্ট ব্রডও ক্যাচ দিলেন টিম পাইনের হাতে আর সবশেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে স্টার্কের বলে বোল্ড বেয়ারস্টো। ৬৩তম ওভারের খেলা দিয়ে শুরু হয়েছিল দিনের, ৮৫ ওভার ২ বলেই শেষ। স্টার্ক নিয়েছেন ৮৮ রানে ৫ উইকেট, জোড়া শিকার হ্যাজেলউড ও লিওনের।

আসলে আশার শেষ হয়ে যায় রুটের বিদায়েই। অধিনায়কের বিদায়ের পর শিকড় কাটা পড়া গাছের মতোই খানিকক্ষণ ধুঁকে শেষ পর্যন্ত আত্মসমর্পণ ইংল্যান্ডের। ১২০ রানের জয়ে অ্যাডিলেডে সিরিজে ২-০তে এগিয়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ার। এতটা দ্রুতই যে হোটেলে ফিরতে পারবেন, সেটা ভাবেনইনি স্টিভেন স্মিথ! বরং ভাবনায় ছিলেন ডাডলি নার্সের পরিণতিই না বরণ করতে হয় তাঁকে। সতীর্থরা সেই অনাকাঙ্ক্ষিত রেকর্ডের ভাগীদার করতে চাননি স্মিথকে, তাই তো প্রশংসার ফুলঝুরি সব দিকে, ‘আমাদের বিশ্বাসটা ছিল, তবে বেশ জলদিই সব কিছু হয়ে গেল। ছেলেরা সবাই নিজেদের জাত চিনিয়েছে। প্রথম ইনিংসে শন মার্শ দারুণ খেলেছে।’ অপরাজিত ১২৬ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচসেরার পুরস্কারের পাশাপাশি আরেকটি সুখবর পেয়েছেন জিওফ মার্শ তনয় শন। তাঁরই ভাই ও জিওফ মার্শের আরেক ছেলে, মিচেল মার্শকে অ্যাশেজের দলে ডেকেছেন নির্বাচকরা। ১৪ ডিসেম্বর পার্থে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের তৃতীয় টেস্টের জন্য স্কোয়াডে ডাকা হয়েছে এই অলরাউন্ডারকে। ক্রিকইনফো

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com