logo
আপডেট : ১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:৪১
শীতে গরম রাখবে ঝাল খাবার..

শীতে গরম রাখবে ঝাল খাবার..

তীব্র এই শীতে ঠাণ্ডা থেকে বাঁচতে কত কিছুই না করি আমরা !হাতের সংগে হাত ঘষি কিংবা দস্তানা লাগাই, পায়ে মোজা পরিধান করি। কিন্তু এসব প্রক্রিয়া বাদ দিয়েও হাত-পা উষ্ণ রাখা সম্ভব। কিভাবে?-এই শীতে ঝাল খাবার খান।সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।সমীক্ষা বলছে, ঝাল খাবার খেলে হাত-পা গরম থাকে। এক্ষেত্রে, বিশেষ কিছু পদ্ধতি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা। 

শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি :  
ঝাল খাবারে শরীরের তাপমাত্রা ও হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়।এর ফলে, রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। মরিচ ভিটামিন-সি এবং ভিটামিন-এ সমৃদ্ধ। এর ফলে, মরিচ খেলে রক্তনালী-রক্ত কণিকাগুলো সতেজ থাকে। এতে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া স্বাভাবিক থাকে। শীতে রক্ত সঞ্চালন কমে গেলে সাধারণত হাত-পা ঠাণ্ডা হয়ে যায়। এজন্য ঝাল খাবার খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। উইসকনসিন ইউনিভার্সিটির গবেষক জন ব্রিল একথা জানান।

আয়রন সমৃদ্ধ খাবার : 
মাছ, মাছের তেল, নিয়াসিন সমৃদ্ধি খাবার এবং আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খেতে ধমনীর প্রসারিত থাকে এবং রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া স্বাভাবিক থাকে। তাই ওমেগা-থ্রি সমৃদ্ধি মাছ, সবুজ শাক, আয়রন সমৃদ্ধ সবজি ও ফল খেতে থাকুন পুরো শীত জুড়ে।

সিগারেট-কফি বর্জন : 
এই শীতে নিকোটিন, ক্যাফেইন এবং অ্যালকোহল তিনটি উপাদানই বাদ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন জন ব্রিল। তার মতে, নিকোটিন এবং ক্যাফেইন রক্তনালীকে সংকুচিত করে এবং রক্ত সঞ্চালনে বাধা দেয়। ফলে হাত এবং পায়ের স্বাভাবিক রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া বাধা প্রাপ্ত হয়ে সেগুলো শীতল হয়ে যায়। অ্যালকোহল সাময়িক সময়ের জন্য শরীরকে উষ্ণ করলেও পরবর্তীতে নিকোটিন এবং ক্যাফেইনের মতোই বিরূপ প্রভাব ফেলে।

পর্যাপ্ত পানি পান : 
শীতে বেশিরভাগ মানুষই পানি পান করা কমিয়ে দেয়। পানি ঠাণ্ডা থাকার কারণে এবং তৃষ্ণা কম পাওয়ার কারণে পানি পান করা হয়না বললেই চলে। কিন্তু শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখতে শীতেও পরিমিত পানি পান করা জরুরী। এতে শরীরের তাপমাত্রা ঠিক থাকবে এবং হাইপোথারমিয়া হওয়ার ঝুঁকি কমে যাবে।

ব্যায়াম : 
বাইরের বাতাসের ভয়ে হাঁটা কিংবা দৌড়ানো হয়না। আবার ঘরে কিংবা জিমেও ব্যায়াম করতে আলসেমি লাগে। শীতে হাত এবং পা-সহ পুরো শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখতে ব্যায়াম করুন নিয়মিত। ডা. ব্রিলের মতে, নিয়মিত ব্যায়াম করলে রক্ত সঞ্চালন ঠিক থাকে এবং শরীরের তাপমাত্রাও নিয়ন্ত্রিত থাকে। 

ঢিলে-ঢালা পোশাক : 
সমীক্ষা বলছে, শীতে ঢিলে পোশাক পরলে তা ‌'স্পেস হিটার'-র কাজ করে। শীতে উষ্ণতার জন্য হাত এবং পা ঢেকে রাখতে হবে। তবে হাত মোজা এবং পা মোজা একটু ঢিলে হলে দ্রুত হাত-পা উষ্ণ হবে। এতে মাঝে আঁটকে থাকা বাতাস ইনসুলেটরের কাজ করে। ফলে হাত-পা গরম থাকে।

তথ্যসূত্র: ডেইলি মেল

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com