kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

চট্টগ্রামে গৃহকর বৃদ্ধি

মেয়রের সঙ্গে আ. লীগের বৈঠক শেষ মুহূর্তে স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০৬:৪৪



মেয়রের সঙ্গে আ. লীগের বৈঠক শেষ মুহূর্তে স্থগিত

গৃহকর বাড়ানোর বিষয়টি নিয়ে চট্টগ্রাম নগর সংস্থার মেয়রের সঙ্গে নগর আওয়ামী লীগের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে। কিন্তু দুপুরে বৈঠক স্থগিত করার জন্য জানিয়ে দেন দলের নেতারা।

 

এদিকে মেয়রের সঙ্গে গতকাল কোনো বৈঠক থাকার কথা জানেন না বলে জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী।  

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মহিউদ্দিনের নির্দেশে নগরের বিভিন্ন সেবা সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক শুরু করেছে নগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদল। এর ধারাবাহিকতায় গতকাল বিকেল ৪টায় সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। মেয়রও বৈঠকে সম্মতি দেন। কিন্তু বৈঠকের দুই ঘণ্টা আগে দুপুর ২টার দিকে নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নঈমউদ্দিন চৌধুরী টেলিফোনে সিটি করপোরেশনের একজন কর্মকর্তাকে বৈঠক স্থগিত করার কথা জানান।

নঈমউদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা সবাই যার যার কাজে ব্যস্ত আছি। মঙ্গলবার সকালে ওয়াসার সঙ্গে বৈঠক করেছি। বিকেলে আরেকটা বৈঠক করা সম্ভব নয়। পরবর্তী সময়ে মেয়র সময় দিলে বৈঠক হবে।

মেয়রের একান্ত সহকারী রায়হান ইউসুফ বলেন, ‘মহানগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকের সব আয়োজন সম্পন্ন হয়েছিল। আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়। দুপুরের পর মেয়র নগর ভবনে আসবেন—এমনটাই কথা ছিল। হঠাত্ করে প্রতিনিধিদল থেকে বলা হয়েছে, বৈঠক হবে না। আজকে তারা আসতে পারবে না। ’

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সাবেক মেয়র মহিউদ্দিনের মেয়ে ফৌজিয়া সুলতানা টুম্পার মৃত্যুবার্ষিকীর মেজবানে অংশ নিতে গতকাল দুপুরে তাঁর বাসায় যান নগর আওয়ামী লীগের নেতারা। গৃহকর বাড়ানোর বিষয়ে মেয়রের অনড় মনোভাবের বিষয়টি গতকাল গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর দলীয় নেতারা হঠাত্ সিদ্ধান্ত পাল্টান।  

মেয়রের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে মহিউদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ‘কে বৈঠক ডেকেছেন? কারা বৈঠক করবেন? আমাকে তো কিছুই জানানো হয়নি। আমি বৈঠকের বিষয়ে কিছু জানি না। ’

নিজ বাসভবনে মহিউদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের আরো বলেন, ‘গত সোমবার ১৪ দলের সভা করেছি। সেখানে এক মাসের আলটিমেটাম দিয়েছি। দেখি কী হয়! তারপর একটা কিছু করব। ’

চট্টগ্রাম কলেজ-মহসিন কলেজের পরিস্থিতি নিয়ে মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘গুণ্ডাপাণ্ডা সব ছাত্রলীগ হয়ে গেছে। খালি মারামারি করে। ওরা ভেবেছে আমি বুড়ো হয়ে গেছি। সে জন্য আমাকে গুঁতা দিচ্ছে। ’

উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর গৃহকর বাড়ানো নিয়ে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনকে চিঠি দেন সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী।


মন্তব্য