kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল রুট

বিরতিহীন সুবর্ণ এক্সপ্রেসের বিলম্ব তদন্তে কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০৪:৫৩



বিরতিহীন সুবর্ণ এক্সপ্রেসের বিলম্ব তদন্তে কমিটি

বিরতিহীন আন্ত নগর ট্রেন 'সুবর্ণ এক্সপ্রেস' গতকাল মঙ্গলবার চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছেছে নির্ধারিত সময়ের প্রায় দুই ঘণ্টা ২০ মিনিট পর। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এই বিলম্ব হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। তার পরও প্রকৃত ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

জানা গেছে, আন্ত নগর সুবর্ণ এক্সপ্রেস গতকাল নির্ধারিত সময় সকাল ৭টায় ১৮টি বগিতে ৮০১ জন যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রাম রেলস্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। তিন কিলোমিটার পথ যেতেই সকাল ৭টা সাত মিনিটে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি কোচের চাকা গরম হওয়ায় পাহাড়তলী স্টেশনে গিয়ে চলন্ত ট্রেনটি হঠাৎ বন্ধ হয়ে যায়। যান্ত্রিক ত্রুটি হওয়া বগিটিতে ৫৫ জন যাত্রী ছিল। পরে চট্টগ্রামের মার্শাল ইয়ার্ড থেকে ৬৫১৭ নম্বরের একটি এসি বগি পাহাড়তলী স্টেশনে নিয়ে এসে বিকল হওয়া বগির স্থলে সংযোজন করা হয়। এরপর সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে ট্রেনটি চট্টগ্রামের পাহাড়তলী স্টেশন থেকে ঢাকার পথে রওনা হয়। ফলে দুই ঘণ্টা ৪০ মিনিট দেরিতে সুবর্ণ এক্সপ্রেস গতকাল দুপুর ২টা ৫০ মিনিটে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছে। ট্রেনটি (সোমবার বন্ধ) প্রতিদিন সকাল ৭টায় চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছার শিডিউল রয়েছে। পূর্ব রেলের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দায়িত্বরতরা জানান, ট্রেনটির একটি বগির চাকা 'হট এক্সেল' (চাকা গরম হওয়া) হওয়ায় এই বিপত্তি দেখা দেয়।

পূর্বাঞ্চল রেলের বিভাগীয় বাণিজ্যিক ব্যবস্থাপক মিজানুর রহমান বলেন, 'ট্রেনটি দুই ঘণ্টা ২০ মিনিট বিলম্বে পাহাড়তলী থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হওয়ায় ঢাকায় পৌঁছতে বিলম্ব হয়েছে।'

এদিকে ঘটনা তদনে্ত চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা ফিরোজ ইফতেখারকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি করেছে রেলওয়ে। পাঁচ দিনের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

একাধিক কর্মকর্তা জানান, সুবর্ণ ট্রেনের সাপ্তাহিক বন্ধ সোমবার। এদিন ট্রেনটি চেক করার কথা। অথচ পরদিনই একটি বগিতে এমন ত্রুটি ধরা পড়েছে।


মন্তব্য