kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

সীতাকুণ্ডে জনতার ধাওয়ায় ব্যর্থ হলো অপহরণচেষ্টা

এলাকাবাসীর অভিযোগ পুলিশের প্রতি

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৩:১৮



সীতাকুণ্ডে জনতার ধাওয়ায় ব্যর্থ হলো অপহরণচেষ্টা

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে এক জেলে সর্দারকে পুলিশ পরিচয়ে গাড়িতে তুলে নেওয়ার সময় গ্রামবাসীদের ধাওয়ায় শেষ পর্যন্ত তাঁকে ফেলে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয় অস্ত্রধারী তিন যুবক। গতকাল শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ভাটিয়ারী ইউনিয়ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ পরিচয় দেওয়া ওই তিন যুবকের সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র ও হাতকড়া থাকায় তারা সাদা পোশাকের পুলিশ বলে অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী। তবে পুলিশ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলে দাবি করেছেন থানার ওসি।

এলাকাবাসী জানায়, গতকাল বিকাল আনুমানিক ৫টার দিকে উপজেলার ভাটিয়ারী ইউনিয়নের মীর্জানগর গ্রামের জেলে সর্দার বাদল জলদাশসহ এলাকার বেশ কয়েকজন জেলে বাড়ির পাশের একটি মাঠে বসে আসন্ন মাঘী পূর্ণিমার উৎসব আয়োজন নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এ সময় সেখানে এসে দাঁড়ায় একটি সিএনজি অটোরিকশা। অটোরিকশা থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও হাতকড়াসহ তিন যুবক নেমে এসে জেলে সর্দার বাদল জলদাশকে ধরে ফেলে টেনে গাড়িতে তুলে ফেলার চষ্টো করে। তারা নিজেদেরকে সীতাকুণ্ড থানার পুলিশ বলে পরিচয় দেয়। কিন্তু নির্দোষ বাদলকে গাড়িতে তুলতে দেখে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে ওই তিন যুবককে ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে তারা বাদলকে কেড়ে নিলে অস্ত্রধারী যুবকরা গাড়ি নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগি জেলে সর্দার বাদল জলদাশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, 'প্রতিবছর মাগী পূর্ণিমায় আমরা একটি ধর্মীয় মহোৎসব করি। এবারো সেই সময় এসে যাওয়ায় শুক্রবার দুপুরে মাঠে রোদে বসে মহোৎসবের মিটিং করছিলাম আমরা। এ সময় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে তিন যুবক এসে আমাকে টেনে গাড়িতে তুলে ফেলেন। কিন্তু এলাকাবাসী এটা মানতে না পেরে তাদেরকে ধাওয়া করলে গাড়িতে উঠে দ্রুত পালিয়ে যায় তারা। বাদল আরো বলেন, তারা সাদা পোশাকে থাকলেও অস্ত্র, হ্যান্ডকাপ ইত্যাদি দেখে পুলিশ বলে সন্দেহ হচ্ছে আমাদের।'

ভাটিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নাজিম উদ্দিন বলেন, 'ঘটনাটি আমি শুনেছি। পুলিশ এভাবে আসবে বলে আমার মনে হচ্ছে না। পুলিশ পরিচয়ে তাকে কেউ অপহরণের চেষ্টা করেছে বলে মনে হচ্ছে আমার।'

সীতাকুণ্ড থানার ওসি মো. ইফতেখার হাসান বলেন, সেখানে আমাদের কোনো পুলিশ সদস্য যায়নি। অস্ত্র নিয়ে কারা তাকে অপহরণের চেষ্টা করেছে আমি বুঝতে পারছি না। এদিকে এ ঘটনার পর থেকে ওই এলাকার মানুষ আতংকিত হয়ে উঠেছে। তারা নিজেদের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।


মন্তব্য