kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

শরীরে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১১:২৯



শরীরে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা

পারিবারিক কলহের জেরে কেরোসিন ঢেলে নিজের শরীরে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে মো. দৌলত (২৩)। তার শরীরের ২৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। শ্বাসনালি পুড়ে যাওয়া তাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকেরা। চমেক পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আরো পড়ুন:


তিনি জানান, নগরীর বায়েজিদ থানাধীন চা বোর্ড এলাকার দুবাইওয়ালার বিল্ডিংয়ে আজ মঙ্গলবার দৌলত নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এ সময় তার স্ত্রী রূপালি আক্তার পাশে ছিলেন। রাত দুইটায় তাকে চমেক হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক বার্ন ইউনিটে (৩৬ নম্বর ওয়ার্ড) ভর্তি দেন। তিনি জানান, দৌলতের গ্রামের বাড়ি ফটিকছড়ির ভুজপুর এলাকার হেঁয়াকো বাজারে। তারা বায়েজিদে ভাড়া থাকতেন।  


আরো পড়ুন:


দৌলতের শ্বশুর, কুমিল্লার মো. দুলাল জানান, দৌলত পেশায় প্রাইভেট কার চালক। মাসখানেক আগে রূপালি আক্তারের সঙ্গে প্রেম করে বিয়ে করে। সোমবার রাতে মেয়ে ফোন করে তাকে জানান, দৌলত নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। তারপর তিনি ছুটে যান এবং হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, রূপালি জানিয়েছে কিছু দিন ধরে তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে দৌলত আত্মহত্যার চেষ্টা করে।    

 


মন্তব্য