kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

নোয়াখালীতে অপহৃত শিক্ষার্থীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার, আটক ৩

নোয়াখালী প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০১৮ ০১:১৪



নোয়াখালীতে অপহৃত শিক্ষার্থীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার, আটক ৩

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরবাটা ইউনিয়নের চরবাটা গ্রামের শিক্ষার্থী কামরুল ইসলাম সাগরের (১৭) গলা কাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়ার পাঁচ দিন পর একই গ্রামের হাজি মোজাম্মেল হক ও হাজি রফিক উল্লাহ চৌধুরীর বাড়ির মাঝখানের নালা থেকে গতকাল মঙ্গলবার সকালে ওই লাশ উদ্ধার করে চরজব্বার থানার পুলিশ।

নিহত সাগর মধ্য চরবাটা গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে। এবার স্থানীয় চরবাটা খাসের হাট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সে এসএসসি পাস করে উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তির জন্য আবেদন করেছিল।

এর আগে গত ১০ জুন শনিবার রাতে সাগরকে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনায় তার বড় ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে প্রতিবেশী রহমত উল্লা, মিঠুন চন্দ্র দাস, রহমত উল্লার স্ত্রী হাসিনা আক্তার, মেয়ে কলেজছাত্রী মমতাজ ও ছেলে দেলোয়ার হোসেন কিসমতকে আসামি করে চরজব্বার থানায় অপহরণ মামলা করেন। পুলিশ গত রবিবার তিনজনকে আটক করে পরদিন আদালতে হাজির করে। আদালত দুজনকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। একজনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল আদালতের নির্দেশে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এর আগে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ কে এম জহিরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তখন মামলার আসামি মিঠুন দাসের ঘর থেকে নিহতের রক্তমাখা কাপড়চোপড় জব্দ করা হয়।

চরজব্বার থানার ওসি নিজাম উদ্দিন জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরার চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য