kalerkantho


কেরানীগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যা : ছিনতাইকারীর মৃত্যুদণ্ড, দুজনের যাবজ্জীবন

আদালত প্রতিবেদক   

৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৪:৪৩



কেরানীগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যা : ছিনতাইকারীর মৃত্যুদণ্ড, দুজনের যাবজ্জীবন

ঢাকার কেরানীগঞ্জের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নবাব আলী হত্যা মামলায় এক ছিনতাইকারীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। অপর দুই সহযোগীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ এস এম কুদ্দুস জামান জনাকীর্ণ এজলাসে এ রায় ঘোষণা করেন। এদিকে দণ্ডিত সহযোগীরা হাইকোর্ট থেকে জামিনে বেরিয়ে পলাতক রয়েছেন।  

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মো. বাচ্চু মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান থানার সৈয়দপুর গ্রামের আবদুল হালিমের ছেলে। রায় ঘোষণার আগে তাকে আদালতের এজলাসে হাজির করা হয়। আর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি সজল ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের পার-গেন্ডারিয়ার তোতা মিয়ার ছেলে এবং সুমন ওরফে মেসি কুমিল্লার দেবীদ্বারের রাজা মোহার এলাকার আবদুল মান্নানের ছেলে। তাদের দুই হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।  

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এই মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বাচ্চু ২০১২ সালের ২৬ মে গ্রেপ্তার হওয়ার পর স্বেচ্ছায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। ঘটনার দায় স্বীকার করে তিনি বলেন, সে তার সহযোগী আসামি সজল ও সুমন মিলে রাত ১টার সময় ছিনতাই করার জন্য জিনজিরার বটতলায় যান। পথিমধ্যে নবাব আলীকে পেয়ে আক্রমণ করে ছুরিকাঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

পরে তার হাতে থাকা মোবাইল সেট নিয়ে তারা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। ওই মোবাইল সেট সজল ৫০০ টাকায় বিক্রি করে। নবাব আলীর ব্যবহৃত মোবাইলটি সজলের কাছ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের পর বিচারকাজ চলাকালে চার্জশিটভুক্ত ১২ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। এর আগে ২০১২ সালের ৮ আগস্ট আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় চার্জ গঠন করেন।  

চার্জশিটে বলা হয়, ভিকটিম নবাব আলী বরগুনা জেলার আমতলী থানার ছোনাউহাটা গ্রামের আকবর আলীর ছেলে। ঢাকার কেরানীগঞ্জের গুলজারবাগ এলাকায় বাস করতেন। তিনি ফেরি করে চশমা বিক্রি করতেন। ২০১২ সালের ১ ফেব্রুয়ারি পারিবারিক কাজে তিনি গ্রামের বাড়ি যান। দুই দিন পর ৩ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে লঞ্চে করে তিনি গ্রাম থেকে ঢাকা আসেন। সদরঘাটে নেমে তিনি বাসায় ফেরার পথে জিনজিরা বটতলায় বেড়িবাঁধের ওপর আসামিদের আক্রমণের শিকার হন। ছিনতাইকারীদের ছুরির আঘাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় নিহতের ভগ্নিপতি মো. নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে কেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।  


মন্তব্য