kalerkantho


খালেদার বিরুদ্ধে দুই মামলা

প্রতিবেদন দেয়নি পুলিশ ২৫ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য

আদালত প্রতিবেদক   

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০২:৩১



প্রতিবেদন দেয়নি পুলিশ ২৫ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য

খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি

ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার করতে আদালতের জারি করা পরোয়ানা তামিল করার বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি পুলিশ। এ ছাড়া দলীয় কর্মসূচি পালনের নামে হরতাল-অবরোধে ৪২ জনকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে করা আরেকটি মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়া হয়নি। দুটি মামলাই গুলশান থানায় করা হয়েছে।

খালেদার বিরুদ্ধে করা ওই দুটি মামলায় গুলশান থানার ওসিকে দেওয়া আদেশের তামিল-সংক্রান্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের জন্য গতকাল রবিবার দিন ধার্য ছিল। কোনো প্রতিবেদন না আসায় ঢাকা মহানগর হাকিম খুরশীদ আলম দুই মামলায় তথ্য পাওয়ার জন্য আবার আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন।

ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম দণ্ডবিধির ১৯৮/৪৬৯ ধারায় ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট আদালতে মামলাটি করেন। ওই দিন আদালতে হাজির হতে খালেদাকে সমন জারি করা হয়। সমন জারি হওয়ার পরও হাজির না হওয়ায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছিল।

মামলায় বলা হয়, বিভিন্ন মাধ্যমে খালেদার পাঁচটি জন্মদিন পাওয়া গেলেও কোথাও ১৫ আগস্ট জন্মদিন পাওয়া যায়নি। এ অবস্থায় তিনি পাঁচটি জন্মদিনের একটিও পালন না করে ১৯৯৬ সাল থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকী অর্থাৎ জাতীয় শোক দিবস ১৫ আগস্ট তারিখে আনন্দ উৎসব করে জন্মদিন পালন করে আসছেন।

এদিকে ২০১৫ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিএনপির আহ্বানে আন্দোলন কর্মসূচি চলার দিনগুলোতে সারা দেশে বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার ঘটনায় ৪২ জন নিহত হওয়ার অভিযোগ এনে আদালতে মামলা করেন বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। এ মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন, তাঁর উপদেষ্টা ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, দলের ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী ও স্থায়ী কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম মিয়াকে আসামি করা হয়েছে। অভিযোগ তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য গুলশান থানার ওসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

মামলা দুটি দায়েরের পর বেশ কয়েকটি ধার্য তারিখ অতিবাহিত হলেও গুলশান থানার ওসি গতকাল পর্যন্ত কোনো প্রতিবেদন দাখিল করেননি।


মন্তব্য