kalerkantho


তিন মাসে নিষ্পত্তি ৪৩৭টি

মামলার জট কমছে সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে

মোশাররফ হোসেন, সাতক্ষীরা    

১৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:২৪



মামলার জট কমছে সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে

সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলার জট খুলতে শুরু করেছে। এই  আদালতে নিষ্পত্তির অপেক্ষায় বহু মামলা পড়ে থাকায় অস্বস্তিতে ছিল বাদি ও বিবাদি উভয় পক্ষ। এখন জট খুলতে শুরু করায় তারা রয়েছেন বেশ স্বস্তিতে।
 
আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ২০১৬ সালের ১২ জুলাই এই আদালতের বিচারক মো. জিয়াউল হক অন্যত্র বদলি হন। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় এই আদালতে বাড়তি দায়িত্ব পালন করেন জেলা ও দায়রা জজ জোয়ার্দার মো. আমিরুল ইসলাম এবং জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. আশরাফুল ইসলাম। কিন্তু একইসঙ্গে দুটি আদালতের কার্যক্রম সামলানো তাদের পক্ষে খুবই কঠিন হয়ে পড়ে। ফলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মামলার সংখ্যা ক্রমেই বাড়তে থাকে।
 
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই আদালতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা যখন প্রায় তিন হাজার তখন বিচারক (জেলা জজ) হিসেবে নিয়োগ পান হোসনে আরা আক্তার। তিনি ২০১৭ এর নভেম্বরে যোগদান করলেও শুরু হয় এক মাসের ছুটি। ফলে ২০১৮ এর জানুয়ারি থেকেই তাঁর কার্যক্রম শুরু হয়। এ সময় মামলার সংখ্যা ছিল ২৮৪৫টি।
 
আদালতের পিপি অ্যাড. জহুরুল হায়দার জানান, নতুন বিচারক যোগদানের পর গত জানুয়ারি মাসে ১৩৬টি, ফেব্রুয়ারিতে ২০২টি এবং মার্চে ৯৯টিসহ ৪৩৭টি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। এ সময় সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে প্রায় চার শ জনের। তিনি বলেন, মাত্র তিন মাসে মামলার সংখ্যা এসে দাঁড়িয়েছে ২৪০৮টিতে। এই ধারা চলতে থাকলে দ্রুততার সঙ্গে আরো বহু মামলা নিষ্পত্তি হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। এতে সংশ্লিষ্টদের ভোগান্তিও হ্রাস পাবে।
 


মন্তব্য