kalerkantho


‘শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে কোনো কাজ হবে না’

জামালপুর প্রতিনিধি   

৭ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:৩৫



‘শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে কোনো কাজ হবে না’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী বলেছেন, দেশের মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং বেগম খালেদা জিয়াসহ নেতাকর্মীদের মুক্ত করতে আন্দোলন তীব্র করার কোনো বিকল্প নেই। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশ দেওয়া আছে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির। কিন্তু এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে কোনো কাজ হবে না। তাই পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত বিএনপির প্রতিটি নেতাকর্মীকে নিজেদের মধ্যে ঐক্য ধরে রাখাই এখন আমাদের মূলমন্ত্র।

তিনি আজ শনিবার দুপুরে জামালপুর জেলা বিএনপি আয়োজিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। শহরের জামালপুর-শেরপুর বাইপাস সড়কে স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে বেলা ১১টা থেকে দিনব্যাপী এ কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

রুহুল আলম চৌধুরী আরও বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে আপনারা সবাই জানেন। দেশে এখন আর গণতন্ত্র নেই। সারা দেশে ১৫ লাখ নেতাকর্মীর নামে মিথ্যা মামলা আছে। জামালপুরের বিএনপি নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বাবুলসহ অনেকেই কিন্তু আজ জেলে আছেন। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াও আজ কারারুদ্ধ। তিনি অসুস্থ। তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। দেশনেত্রীকে সুস্থ হিসেবে ফেরত পেতে চাই। এজন্য সবাইকে দোয়া করার আহ্বান জানান তিনি।

কর্মী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়রম্যান ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবেক আইজিপি আব্দুল কাইউম, সাবেক স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী মো. সিরাজুল হক, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, সাবেক সংসদ সদস্য মো. সুলতান মাহমুদ বাবু, দর্শনা পৌর বিএনপির সভাপতি মাহমুদুর রহমান শাওন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাহিদা আক্তার রীতা, জিয়া পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি আইনজীবী মো. গোলাম নবী, জামালপুর সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. সফিউর রহমান, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক শহিদুল হক খান দুলাল, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম খান সজিব প্রমুখ। কর্মী সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী শাহ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ কর্মী সমাবেশে বিএনপির জেলা, সাতটি উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন শাখাসহ বিভিন্ন অঙ্গদলের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন।


মন্তব্য