kalerkantho


জিয়ার মৃত্যুবাষির্কীতে ১০ দিনের কর্মসূচি

ইসি পুনর্গঠন চায় বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ মে, ২০১৮ ০১:১৫



ইসি পুনর্গঠন চায় বিএনপি

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষভাবে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন পরিচালনা করার জন্য যোগ্য নয়। যারা একটি সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে পারে না, জনগণের অধিকারকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে না। তারা জাতীয় সংসদ নির্বাচন কীভাবে পরিচালনা করবে? আমরা সেই জন্য বার বার বলছি, এই নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) শুধু পদত্যাগ নয়, পুনর্গঠন চাই। আমরা অবিলম্বে নির্বাচন কমিশনকে ভেঙে দিয়ে কমিশন পুনর্গঠনের দাবি জানাচ্ছি। এ সময় দলের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ১০ দিনের কর্মসূচি পালিত হবে বলে তিনি জানান।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী নুরুল ইসলাম মনজুর পরাজয়ের পরিপ্রেক্ষিতে এ কথা বলেন ফখরুল।
এর আগে দলের এক যৌথ সভা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, খুলনা নির্বাচন আপনারা দেখেছেন। সেই নির্বাচনেও তারা (সরকার) সেখানকার মানুষের ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে। পত্র-পত্রিকায়ও এসেছে- আজকে নতুন কায়দায় নতুন রূপে ভোট ডাকাতি শুরু হয়েছে, ভোট কেন্দ্র দখলের রাজনীতি শুরু হয়েছে। খুলনা সিটি করপোশন নির্বাচনে প্রমাণিত হয়ে গেছে, এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না।গত ১৫ মে খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের ব্যাপক তান্ডব, ভোট কেন্দ্রে জালিয়াতি, ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের জোর করে বিজয় ছিনিয়ে নেওয়ার মাধ্যমে নিন্দা জানানো হচ্ছে।

কারাবন্দি অসুস্থ খালেদা জিয়াকে সুচিকিৎসা না দিয়ে আটকিয়ে রাখা হয়েছে অভিযোগ করে তার মুক্তির দাবিও জানান বিএনপি মহাসচিব।

সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতা রুহুল কবির রিজভী, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, বিলকিস জাহান শিরিন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, জয়নাল আবেদীন প্রমুখ উপসি্হত ছিলেন।
কর্মসূচি : প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দশ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। আগামী ২৫ মে থেকে ৫ জুন পর্যন্ত এই কর্মসূচি হবে।

কর্মসূচির মধ্যে ২৯ মে সকাল ১১টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা সভা, ৩০ মে সকাল ১০ টায় প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও কবরপ্রাঙ্গণে মিলাদ মাহফিল, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, বই মেলা প্রভৃতি।

৩০ মে বিএনপি নয়া পল্টনের কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত করবে এবং নেতা-কর্মীরা কালো ব্যাজ বুকে ধারণ করবে।

৩০ মে মহানগরের প্রতিটি থানায় দুঃস্থদের মধ্যে কাপড় ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হবে। ছাত্র দলের উদ্যোগে জাতীয় প্রেস ক্লাবের জিয়াউর রহমানের ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। বিভাগীয় শহরগুলোতে জিয়া স্মৃতি পাঠাগারের উদ্যোগে বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে।

১৯৮১ সালে ৩০ মে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউকে সেনাবাহিনীর একদল সদস্যদের অভ্যুত্থানে রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান নিহত হন। সেই থেকে বিএনপি এই দিনকে শাহাদাৎ দিবস হিসেবে পালন করে আসছে।

দিবসটি উপলক্ষে কেন্দ্রীয়ভাবে বিএনপি পোস্টার প্রকাশ করবে। পত্র-পত্রিকা ও অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশ করবে বিশেষ ক্রোড়পত্র।

মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে যৌথ সভায় দলের নেতা রুহুল কবির রিজভী, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, বিলকিস জাহান শিরিন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, জয়নাল আবেদীন, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, আবদুস সালাম আজাদ, আসাদুল করীম শাহিন, মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ, জন গোমেজ ছিলেন, অঙ্গসংগঠনের মহানগর বিএনপি কাজী আবুল বাশার, বজলুল বাসিত আনজু, এজিএম শামসুল হক, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাদেক আহমেদ খান, যুব দলের মোরতাজুল করীম বাদরু, নুরুল ইসলাম নয়ন, মহিলা দলের সুলতানা আহমেদ, শ্রমিক দলের নুরুল ইসলাম খান নাসিম, স্বেচ্ছাসেবক দলের মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, উলামা দলের হাফেজ আবদুল মালেক, শাহ নেসারুল হক, তাঁতী দলের আবুল কালাম আজাদ, মৎস্যজীবী দলের রফিকুল ইসলাম মাহতাব, কৃষক দলের তকদির হোসেন জসিম, জামাল উদ্দিন খান মিলন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য