kalerkantho


ঈদে পাঁচ দিন বন্ধ পুঁজিবাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ জুন, ২০১৮ ১৬:৩২



ঈদে পাঁচ দিন বন্ধ পুঁজিবাজার

ঈদুল ফিতরের আগে গতকাল ছিল পুঁজিবাজারে শেষ কার্যদিবস। ফাইল ছবি

ঈদুল ফিতরের আগে শেষ কার্যদিবস গতকাল মঙ্গলবার দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের সঙ্গে লেনদেন বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সঙ্গে বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ারের দামও বেড়েছে।

এদিকে এবারের ঈদে পুঁজিবাজার বন্ধ থাকছে পাঁচ কার্যদিবস। আগামী সপ্তাহের সোমবার বা ১৮ জুন থেকে পুঁজিবাজারে স্বাভাবিক লেনদেন চালু হবে। সেই হিসাবে গতকাল মঙ্গলবার ছিল ঈদের আগে পুঁজিবাজারের শেষ লেনদেন। বুধবার শবেকদরের সরকারি ছুটি। আর বৃহস্পতিবার বিশেষ ছুটি ঘোষণা করেছে ডিএসই পরিচালনা পর্ষদ। মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৫৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে প্রায় ৩৯ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৫০ কোটি টাকা। আর সূচক বেড়েছিল ৩ পয়েন্ট।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই শেয়ার কেনার চাপে সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শেয়ার ক্রয় বাড়তে থাকলে সূচকও বৃদ্ধি পায়। এতে সূচক বৃদ্ধির মধ্য দিয়ে দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৩৬৫ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ৫ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৯৫৮ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে এক হাজার ২৩৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৯ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৯৮টির, কমেছে ৮৮টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৩ কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে খুলনা পাওয়ার। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ২২ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা মুন্নু সিরামিকসের লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৪২ লাখ টাকা। আর তৃতীয় স্থানে থাকা ফার্মা এইডের লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ২১ লাখ টাকা। অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে ইউনাইটেড পাওয়ার, গ্রামীণফোন, স্কয়ার ফার্মা, জেএমআই সিরিঞ্জ, আলিফ ইন্ডাস্ট্রি, লিগেসি ফুটওয়্যার ও ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে ৬৫ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১০ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছিল ১৩ পয়েন্ট। মঙ্গলবার লেনদেন হওয়া ২১৪ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৩টির, দাম কমেছে ৬৮টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩ কম্পানির শেয়ারের দাম। 

বার্জার পেইন্টের শেয়ারের দাম কমেছে ৪৬ শতাংশ : লভ্যাংশ ঘোষণাসংক্রান্ত রেকর্ড ডেটের পর সমন্বয়ের কারণে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশের শেয়ারের দাম কমেছে ৪৬ শতাংশ, যা মঙ্গলবার কম্পানি শেয়ারের দাম হ্রাসে সর্বোচ্চ। কম্পানিটির শেয়ারের দাম ছিল ২৭৫৯.১০ টাকা। তবে তা কমে দাঁড়িয়েছে ১৪৬৫.৮০ টাকা। অর্থাৎ কম্পানিটির শেয়ারের দাম কমেছে ১২৯৩.৩০ টাকা বা ৪৬.৮৭ শতাংশ।


মন্তব্য