kalerkantho


শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

৩০ জন বিসিএস কৃষি ক্যাডার পেলেন মৌ পালনে উন্নত প্রশিক্ষণ

শেকৃবি প্রতিনিধি   

১৪ মে, ২০১৮ ০১:২৯



৩০ জন বিসিএস কৃষি ক্যাডার পেলেন মৌ পালনে উন্নত প্রশিক্ষণ

মৌমাছি পালনের ওপর ৯০ দিনের প্রশিক্ষণ শেষে গত শনিবার শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শেকৃবি) ৩০ জন বিসিএস কৃষি কর্মকর্তাকে সনদ প্রদান করা হয়েছে। প্রশিক্ষিত কৃষি কর্মকর্তারা উন্নতমানের মৌমাছি ও মধু উৎপাদনে ভূমিকা রাখবেন বলে আশাবাদ কীটতত্ত্ব বিশেষজ্ঞদের।

প্রশিক্ষণ কর্মশালার আহ্বায়ক ও শেকৃবির কীটতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান কালের কণ্ঠকে জানান, ৩০ জন বিসিএস কৃষি কর্মকর্তাকে মৌমাছির মাধ্যমে ফসলের পরাগায়ন, রাণী মৌমাছি উৎপাদন, ঋতুভিত্তিক মৌমাছির কলোনি পরিচর্যা, পরাগ রেণু, মৌ বিষ, রয়েল জেলি ও উন্নতমানের মধু উৎপাদন, মধুর গুণগত মান পরীক্ষা, রোগ-বালাই ও ক্ষতিকর পোকা দমন এবং মৌমাছি পালনে উপকাঈ উদ্ভিদ রোপণ ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

প্রশিক্ষণ কর্মশালার অন্যতম প্রধান প্রশিক্ষক ও শেকৃবির কীটতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. সাখাওয়াত হোসাইন কালের কণ্ঠকে বলেন, এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর উন্নত মৌমাছি ও মধু উৎপাদনে একদল দক্ষ কর্মকর্তা পেল। প্রশিক্ষিত কর্মকর্তারা ফসল ও মধুর উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ে মৌ চাষীদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখবে।

শেকৃবির কীটতত্ত্ব বিভাগের উদ্যোগে ও কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের অর্থায়নে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

প্রশিক্ষণ শেষে সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রকল্প পরিচালক মো. খায়রুল আলম প্রিন্সের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেকৃবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যড়্গ অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল হক বেগ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পরিচালক অমিতাভ দাস, প্রশিক্ষণ কর্মশালার আহবায়ক অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও কীটতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষিকারা।


মন্তব্য