kalerkantho


অতি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে দিনাজপুরে বন্যা

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০১৭ ১২:১০



অতি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে দিনাজপুরে বন্যা

অতি বর্ষণ এবং ভারত থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে দিনাজপুরে বন্যা দেখা দিয়েছে। জেলার বিভিন্ন উপজেলায় প্রায় ২০০ ঘরবাড়ি, হাঁস-মুরগি ভেসে গেছে।

বন্যাকবলিতরা নিরাপদ স্থানের আশায় এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ছুটে বেড়াচ্ছে। তিন দিন ধরে অবিরাম বৃষ্টি ঝরছে। আত্রাই-কাকড়া নদীর পানি বাঁধ উপচে গ্রামগুলোকে প্লাবিত করে ফেলেছে। শহরতলীর পুনর্ভবা নদীর পানি বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করছে।  

এদিকে দিনাজপুরের সাথে ঠাকুরগাঁও এবং পঞ্চগড় জেলার ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। যে হারে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে পার্বতীপুরে জংশন পথ যেকোনো সময় তলিয়ে যেতে পারে।  

এ ছাড়াও বীরগঞ্জ, খানসামা, ঘোড়াঘাট, বোচাগঞ্জ, চিরিরন্দর, বিরল কাহারোল উপজেলা এবং জেলা সদরের প্রায় ৫ হাজার মানুষ ঘরবাড়ি ছাড়তে বাধ্য হয়েছে। তা ছাড়াও শহরের লালবাগ কাঞ্চন কলনি সাধুরঘাট পশ্চিম বালুয়াডাঙ্গা হঠাৎপাড়ায় ঘরবাড়ি বুক সমান পানিতে তলিয়ে গেছে। ড্রেন দিয়ে বিভিন্ন বস্তিতে পানি প্রবেশ করছে।

ফলে সারাদিন ধরে চুলোয় হাঁড়ি চড়েনি তাদের।  

গতকাল শনিবার বিকেলে শহরের লালবাগ কাঞ্চন কলনিসহ তলিয়ে যাওয়া নিমাঞ্চল পরিদর্শন করেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও জেলা সদরের এমপি ইকবালুর রহিম। নিজস্ব তহবিল থেকে তৈরি খাবার (খিচুড়ি) বিতরণ শুরু করেছেন তিনি।  

এ ছাড়াও শুকনো খাবারসহ প্রয়োজনীয় ত্রাণ সহায়তার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রণয়নের জন্য জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন হুইপ ইকবালুর রহিম। তবে জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে এখনো ত্রাণ বিতরন শুরু করা হয়নি।


মন্তব্য