kalerkantho


ভেসে গেছে ১০ কোটি টাকার মাছ

পার্বতীপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০১৭ ২২:২৩



পার্বতীপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

ছবি : কালের কণ্ঠ

পার্বতীপুরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। ৩ দিনের টানা বর্ষনে প্লাবিত হয়েছে উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন। পানিতে তলিয়ে গেছে ১৮হাজার হেক্টর জমির আমন ক্ষেত। ভেসে গেছে আড়াই হাজার পুকুরের মাছ। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন শতাধিক গ্রামের মানুষ। ভেঙ্গে পড়েছে শতাধিক কাঁচা বাড়ী। গবাদিপশু নিয়ে মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে স্থান নিতে শুরু করেছে।  

ইতি মধ্যে ৩টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলেছে উপজেলা প্রশাসন। বিতরণ করা হচ্ছে রান্না করা খাবার। রেললাইনে পানি ওঠায় পার্বতীপুর-পঞ্চগড় ও পার্বতীপুর-বিরল এ দুই রেল পথে ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও ফুলবাড়ী-দিনাজপুর মহাসড়কের পার্বতীপুর-পাঁচবাড়ী অংশের ১৬ কিলোমিটার সড়ক বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় দিনাজপুরের সাথে ঢাকার সরাসরি সড়ক যোগাযোগ রবিবার ভোর থেকে বন্ধ রয়েছে।

 

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে দেখা যায়, অধিকাংশ এলাকার মানুষ বন্যা কবলিত পড়েছে। বেলাইচন্ডি ইউনিয়নের কৈপুলকী, ব্রহ্মোত্তর এলাকার মানুষ ইউনিয়নের সোনাপুকুর উচ্চ বিদ্যালয়, হাবড়া ইউনিয়নে হাবড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হামিদপুর ইউনিয়নের পূর্বশুকদেবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্রে এসব মানুষ আশ্রয় নিয়েছে।  

কেন্দ্রগুলোতে আশ্রয় নিয়েছে দেড় শতাধিক পরিবার। এ ছাড়াও বাড়ীতে পানি উঠায় তিলাই ও ছোট যমুনা নদী তীরবর্তী গ্রামগুলো থেকে নিজ উদ্যোগে অনেকে পরিবার পরিজন নিয়ে নিকটস্থ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিয়েছেন। এদিকে পার্বতীপুর-দিনাজপুর, পার্বতীপুর-বছিরবানিয়া, ফুলবাড়ী-বড়পুকুরিয়া বাজার সড়কের অনেক স্থানে ৩ থেকে ৫ফুট উচ্চতায় পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তারাপদ চৌহান জানান, উপজেলার ৫হাজার পুকুরের মধ্যে প্রায় আড়াই হাজার পুকুরে মাছ ভেসে গেছে। এতে ক্ষতির পরিমান প্রায় সাড়ে ১০ কোটি টাকা বলে তিনি উল্লেখ করেন।
 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরফদার মাহমুদুর রহমান জানান, উপজেলার সবগুলো ইউনিয়ন বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিসংখ্যান এখনও নিরুপন করা সম্ভব হয়নি বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনটি আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রিত দেড় শতাধিক পরিবারের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।  


মন্তব্য