kalerkantho


ধামরাই থানার ওসিকে কারণ দর্শানোর নোটিস

চাঁদাবাজির মামলায় আট বছরের শিশু আসামি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ আগস্ট, ২০১৭ ২৩:২৮



চাঁদাবাজির মামলায় আট বছরের শিশু আসামি

চাঁদাবাজির একটি  মামলায় আট বছরের এক শিশুকে আসামি করায় ঢাকা জেলার ধামরাই থানার বারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হয়েছে। আজ রবিবার ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এই আদেশ দেন।

আদালত আদেশে বলেছেন, আসামির বয়স যাচাই-বাছাই ছাড়া কেন মামলা নেওয়া হয়েছে এই বিষয়ে আগামী পাঁচদিনের মধ্যে ওসিকে জবাব দিতে হবে।

চাদাবাজির মামলার এই আসামির নাম রিফাত। সে ধামরাই থানার সুয়াপুর ইউনিয়নের পান্নু মিয়ার ছেলে। সুয়াপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র রিফাত গতকাল আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন আবেদন জানায় আইনজীবীর মাধ্যমে। রিফাতের বাবা পান্নু মিয়া তাকে আদালতে নিয়ে আসেন। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আফসানা আবেদীনের আদালতে মামলার শুনানি হয়।  

শিশুর বাবা পান্নু মিয়া কালের কণ্ঠকে বলেন, স্থানীয় শত্রুতার জের ধরে এই মামলা করা হয়েছে। মিথ্যা মামলা থেকে ছোট ছেলেটিও রেহাই পেলো না। মামলার এজাহারে রিফাতের বয়স ১৮ বছর উল্লেখ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আনোয়ারুল কবির বাবুল বলেন, বয়স যাচাই-বাছাই ছাড়া আট বছরের শিশুকে চাঁদাবাজি মামলার আসামি করায় ওসিকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

এজাহার থেকে জানা যায়, ১ আগস্ট এই শিশুসহ অন্য আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে বাদী ও তার লোকজনকে হত্যার উদ্যেশে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে। কয়েকজন আহত হয়। চাদার জন্য এই হামলা করা হয়। পরে চাঁদা দাবি ও মারপিটের ওই ঘটনায় এস এম সোহেল মাহমুদ ৪ আগস্ট বাদী হয়ে ধামরাই থানায় মামলা করেন।


মন্তব্য