kalerkantho


বাঙালি বঙ্গবন্ধু হত্যার শোককে শক্তিতে পরিণত করেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৪ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০৮



বাঙালি বঙ্গবন্ধু হত্যার শোককে শক্তিতে পরিণত করেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ফাইল ছবি

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্টে বঙ্গবন্ধু দেশীয় ও আন্তর্জাতিক মহলের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। স্বাধীনতার বিরোধী শক্তিরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে এদেশে কায়েমী স্বার্থ প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলো।

কিন্তু তাদের ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। বাঙালি বঙ্গবন্ধু হত্যার শোককে শক্তিতে পরিণত করেছে। ’ রবিবার দুপুরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৪২তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ক্ষণজন্মা মানুষ। তিনি যুদ্ধ বিধ্বস্ত একটি দেশকে মাত্র সাড়ে তিন বছরে উন্নতির পথে নিয়ে গেছেন। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত দেশের পর্যায়ে পৌঁছে যেতো। ’ এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করছেন। উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

এই অগ্রযাত্রা কেউ বাধাগ্রসত্ম করতে পারবে না। ’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, ‘১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার সময় তাঁর দুই কন্যা বিদেশে থাকায় তাঁরা প্রাণে বেঁচে যান। সেই ঘোর অন্ধকার বিদিশার মধ্যে তাঁরা ছিলেন আশার আলো। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করার জন্য দেশের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অমানিশা কেটে গেছে। ’ বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন। বাঙালির হূদয় থেকে বঙ্গবন্ধুকে কখনোই মুছে ফেলা যাবে না। ’ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, বর্তমান সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন প্রমুখ।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আবু সুফিয়ান চঞ্চলে সঞ্চালনায় সভায় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবুল হোসেন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আমির হোসেন, কোষাধক্ষ্য অধ্যাপক ড. আবুল খায়ের, প্রক্টর অধ্যাপক ড. তপন কুমার সাহা, ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার শাহ মিজান শফিউর রহমান, জাবি শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদুর রহমান জনি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ রাসেলসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য