kalerkantho


জয়পুরহাটে ট্রেনযাত্রীর সঙ্গে রেলওয়ে পুলিশের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৩

জয়পুরহাট প্রতিনিধি   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২২:৩০



জয়পুরহাটে ট্রেনযাত্রীর সঙ্গে রেলওয়ে পুলিশের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৩

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর রেলওয়ে স্টেশনে রাজশাহীগামী আন্তঃনগর তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেনে যাত্রীদের সঙ্গে রেলওয়ে পুলিশের গুলিবিনিময়ের ঘটনায় তিন যাত্রী গুলিবিদ্ধ ও দুজন পুলিশ আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

আক্কেলপুর থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যা ৭টার দিকে সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী আন্তঃনগর তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেনে সিট নিয়ে দুজন যাত্রীর মধ্যে গন্ডগোল বাঁধে। ট্রেনটি আক্কেলপুর স্টেশনে দাঁড়ানোর পর খবর পেয়ে কর্তব্যরত রেলওয়ে পুলিশ তাদের মধ্যে মীমাংসার জন্য এগিয়ে যায়। সেখানে প্লাটফর্মের অন্য যাত্রীরা এসে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে পুলিশের ওপর চড়াও হয়ে মারপিট শুরু করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে এ সময় পুলিশ রাবার বুলেট ছুঁড়লে স্থানীয় তিন যাত্রী গুলিবিদ্ধ হয়। আর যাত্রীদের হামলায় রেলওয়ে পুলিশের কনস্টেবল আজম আলী ও আব্দুল মজিদ আহত হন।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্থানীয় শ্রীকৃষ্টপুর গ্রামের সুমন নামের এক যুবককে রেলওয়ে পুলিশ আটক করে। বিক্ষুব্ধ জনতা এ ঘটনায় ট্রেনটি আটকে দিলে আক্কেলপুর থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ হয় এবং ঘটনার প্রায় ৩০ মিনিট পর ট্রেনটি রাজশাহীর উদ্দেশে স্টেশন ছেড়ে যায়।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- আক্কেলপুরের তিলকপুর বাজারের আমিনুর রহমান এবং হাসতাবসন্তপুরের আবু সাঈদ ও আজিজার রহমান। এদের মধ্যে দুজন আক্কেলপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও একজন স্থানীয় চিকিত্সকের কাছে চিকিত্সা নেয়।

আক্কেলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিত্সক ডা. মেহেদি হাসান জানান, আবু সাঈদ ও আজিজার রহমানের ডান হাত, বুক ও গলায় ৫টি গুলি লেগেছে। আক্কেলপুর বাজারের পল্লী চিকিত্সক মীর রাজু জানান, গুলিবিদ্ধ ট্রেনযাত্রী আমিনুরের ডান পায়ে ২টি ও বাম পায়ে ১টি গুলি লেগেছে। তিনি নিজেই তাঁর চিকিত্সা দিয়েছেন।
   
আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করলেও নিরাপত্তার স্বার্থে রেলওয়ে পুলিশ এক রাউন্ড ফাঁকা রাবার বুলেট ছুঁড়েছেন বলে জানান।


মন্তব্য