kalerkantho


বগুড়ায় নববধূকে গলাকেটে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৮:০৩



বগুড়ায় নববধূকে গলাকেটে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রতীকী ছবি

বগুড়া শহরে ফাতেমা বেগম (১৯) নামে এক নববধূকে গলাকেটে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে স্বামী সুজন মিয়াকে। নিহত ফাতেমা নাটোরের সিংড়া উপজেলার তোজাম্মেল হোসেনের মেয়ে।

শহরের চকফরিদ এলাকায় গতকাল মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ফাতেমার স্বামী সুজন মিয়াকে আটক করে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ। সুজন শহরের চকফরিদ এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে।  

বগুড়া সদর থানার ওসি এমদাদ হোসেন জানান, তিন সপ্তাহ আগে সুজনের সঙ্গে ফাতেমা বেগমের বিয়ে হয়। মঙ্গলবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সুজন ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করে নিজের গলায় ছুরি চালিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। প্রতিবেশীরা বিষয়টি জানার পর তাকে আটকে বুধবার ভোরে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে বলে জানান তিনি।

ওসি বলেন, সুজন জানিয়েছেন তার স্ত্রীর অন্য কোথাও তার সম্পর্ক থাকায় সংসার করবে না জানালে দুজনের ঝগড়া হয়।

ঝগড়ার এক পর্যায়ে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি।


মন্তব্য