kalerkantho


বকশীগঞ্জে ১৫ ফুট ভাঙা সড়কে ১০ হাজার মানুষের দুর্ভোগ

জামালপুর প্রতিনিধি   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৭:৫৭



বকশীগঞ্জে ১৫ ফুট ভাঙা সড়কে ১০ হাজার মানুষের দুর্ভোগ

ছবি: কালের কণ্ঠ

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার মেরুরচর ইউনিয়নের জাগিরপাড়া-মেরুরচর সড়কের ১৫ ফুট ভাঙা অংশের জন্য ৪ গ্রামের মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ সড়কটি দ্রুত সংস্কার হলে অন্তত ১০ হাজার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, বকশীগঞ্জের মেরুর চর হাছেন আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে জাগিরপাড়া-মেরুরচর সড়কের প্রায় ১৫ ফুট কাঁচা সড়ক এ বছর বন্যায় ভেঙে যায়। ইতিমধ্যেই পানি নেমে গেলেও উপজেলা সদরের সঙ্গে ওই অঞ্চলের একমাত্র সংযোগ সড়কটি সংস্কারের উদ্যোগ নেয়নি কেউ। এতে ওই বকশীগঞ্জের ফকিরপাড়া, কাছিমারচর ও ইসলামপুরের গোয়ালেরচর এলাকাসমূহের প্রায় ১০ হাজার মানুষ অতিকষ্টে যাতায়াত করছেন। এ সড়কটি ভাঙ্গা থাকায় কৃষকরা তাদের উত্পাদিত পণ্য উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন হাট বাজারে নিতে পারছেন না।

মেরুরচর গ্রামের ব্যবসায়ী জালাল উদ্দিন বলেন, এ এলাকায় ধানসহ প্রচুর শাক সবজির চাষাবাদ হয়। রাস্তাঘাট অনুন্নত হওয়ায় এসব উত্পাদিত পন্য সহজে বাজারজাত করা যায়না। ফলে কৃষকরা ন্যয্যমুল্য থেকে বঞ্চিত হন।

মেরুরচর হাছেন আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক শফিকুল ইসলাম বলেন, রাসত্মাটি ভেঙ্গে যাওয়ায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ মানুষের যাতায়াতে অনেক কষ্ট হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসান সিদ্দিক বলেন, বিষয়টি আগে কেউ জানায়নি।

মানুষের দুর্ভোগ লাঘবের জন্য সড়কটি দ্রুত সংস্কার করা হবে।


মন্তব্য