kalerkantho


মির্জাগঞ্জে গৃহবধূর হাতের কব্জি কেটে নিল দুর্বৃত্তরা

বরিশাল অফিস   

১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:০৪



মির্জাগঞ্জে গৃহবধূর হাতের কব্জি কেটে নিল দুর্বৃত্তরা

ছবি: কালের কণ্ঠ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার গোলখালী গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সোমবার রাতে এক গৃহবধূর ডান হাতের কব্জি কেটে বিচ্ছিন্ন করেছে প্রতিপক্ষরা। ওই গৃহবধূকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধূর হাতের কব্জি উদ্ধার করেছে। একই সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দুজনকে আটক করেছে।

শ্বাশুড়ি হোসনে আরা বেগম (৫৫) জানান, তাঁর ছেলে মো. সোহাগ ফরাজীর স্ত্রীর আসমা বেগম (৩২) প্রায় এক সপ্তাহ আগে বাড়ি সংলগ্ন একটি জমি থেকে মাটি কাটে। তখন প্রতিবেশী আব্দুল আজিজ সিকদারের সাথে তাঁর কথাকাটাকাটি (ঝগড়া) হয়। সোমবার রাতে আজিজ ও তাঁর দুই ছেলে কবির ও আল আমিন আসমার ঘরে প্রবেশ করে। এ সময় কবিরের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র (গৃহস্থলির কাজে ব্যবহৃত দা) দিয়ে আসমার ডান হাতের কব্জি কেটে ফেলে।

ওই দিন রাতে আসমার দুই শিশু সন্তান ছাড়া ঘরে আর কেউ ছিল না। এ ঘটনার পর দ্রম্নত হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। আসমার ডাক চিত্কারে লোকজন এসে তাঁকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

খবর পেয়ে ওই রাতে পুলিশ বিচ্ছিন্ন হাতের কব্জি উদ্ধার করে। একই সঙ্গে অভিযান চালিয়ে আজিজ সিকদার ও পুত্র আলামিনকে গ্রেপ্তার করে।

মির্জাগঞ্জ থানার ওসি মো. মনির হোসেন বলেন, 'তিন বাপবেটাসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩/৪ জনকে আসামি করে মির্জাগঞ্জ থানায় গৃহবধূর শাশুড়ি হোসনেয়ারা বেগম মামলা করেছেন। দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য