kalerkantho


নীলফামারীতে পাক হানাদার মুক্ত দিবস পালন

নীলফামারী প্রতিনিধি   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২২:৩৫



নীলফামারীতে পাক হানাদার মুক্ত দিবস পালন

নীলফামারীতে আজ বুধবার পাকহানাদার মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। ১৯৭১ সালের ১৩ ডিসেম্বর নীলফামারী সদর উপজেলা হানাদার মুক্ত হয়।
 
দিবসটি পালনে আজ সকাল ১১টার দিকে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আয়োজনে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মিলনায়তনে এসে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। এ সময় বক্তৃতা দেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসেন খান, নীলফামারী পৌরসভার মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ,  জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ফজলুল হক, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, মুক্তিযোদ্ধা সহিদুল ইসলাম, কান্তিভুষণ কুণ্ডু, শওকত আলী, মতিয়ার রহমান, দেলোয়ার হোসেন, আমিনুল হক, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি হাফিজুর রশিদ। সভায় সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন ভুইয়া।

এর আগে সকালে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে জাতীয় ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পতাকা উত্তোলন এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অপর্ণ করেন মুক্তিযোদ্ধারা।

এসব কর্মসূচিতে মুক্তিযোদ্ধা, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তা কর্মচারী, সাধারণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ফজলুল হক জানান, ১৯৭১ সালের ১২ ডিসেম্বর রাতে শহরের চারদিক থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রবল আক্রমণে হানাদার বাহিনী পরাজিত হয়ে নীলফামারী শহর ছেড়ে আশ্রয় নেয় সৈয়দপুর সেনানিবাসে। ১৩ ডিসেম্বর ভোরে মুক্তিযোদ্ধারা শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন। 



মন্তব্য