kalerkantho


চরভদ্রাসনে জনপ্রিয় হচ্ছে জাল পদ্ধতিতে বেগুন চাষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৬:৪৪



চরভদ্রাসনে জনপ্রিয় হচ্ছে জাল পদ্ধতিতে বেগুন চাষ

ছবি : কালের কণ্ঠ

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলায় দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে পাখির ফসল খাওয়া থেকে রক্ষা পেতে জাল পদ্ধতিতে বেগুন চাষ। এ পদ্ধতিতে চাষাবাদ করে এরই মধ্যে অনেক বেগুন চাষি আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছেন।

চরভদ্রাসন উপজেলার চরহরিরামপুর ইউনিয়নের আরজখাঁরডাঙ্গি গ্রামে বিভিন্ন ফসল ভরা মাঠে এখন সাদা নাইলন সুতায় বোনা জাল দিয়ে চারিদিক ঘিরে রাখা হয়ছে। এর মাঝে রয়েছে সারি সারি বেগুন গাছ। আর তাতে ধরে রয়েছে কৃষকের স্বপ্নের অক্ষত বেগুন।

ওই গ্রামের বেগুনচাষী মোতালেব খান জানান, বেগুনের প্রধান শক্র হল কুঁড়ি বেরোনোর পর পরই বিভিন্ন ধরণের পাখি কচি বেগুন খুবলে খেয়ে সাবাড় করে ফেলে। এতে বেগুন চাষির মাথায় হাত পড়ে। তিনি বলেন, আগে আমি বেগুনের চারা বিক্রি করতাম। পরে স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তার পরামর্শে গত পাঁচ বছর ধরে আমি জাল দিয়ে ঘিরে বেগুন চাষ করে সফলতার মুখ দেখেছি। চারা রোপণের দুই মাস পর থেকে বেগুন ধরা শুরু করে চার মাস পর্যন্ত বিক্রি করা যায়। এবারও ৫২ শতাংশ জমিতে বেগুন চাষ করেছি। এ পদ্ধতিতে মাত্র ১৫ হাজার টাকা খরচ করে এক থেকে দেড় লাখ টাকা লাভ করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন তিনি।  

একই  গ্রামের বেগুন চাষী জালাল খাঁ জানান, জাল পদ্ধতিতে বেগুন চাষে মোতালেব খানের সফলতায় উৎসাহী হয়ে ওই গ্রামের অনেক এখন এভাবে বেগুন চাষ করছেন। তিনি বলেন, শুধু বেগুন চাষই নয়; অন্য ফসলের ক্ষেতেও জাল ব্যবহার করা হচ্ছে।

চরভদ্রাসন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বিশ্বাস জানান, উপজেলার কৃষকদের জাল দিয়ে ঘিরে বারি-২,৩ ও শিংনাথ জাতের বেগুন চাষের ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ করছি। বর্তমানে অনেকেই এ পদ্ধতিতে চাষাবাদে উৎসাহী হয়ে উঠছেন। তিনি বলেন, এ বছর বিভিন্ন গ্রামের ৭৬ বিঘা জমিতে জাল দিয়ে ঘিরে বেগুনের চাষ করা হয়েছে।

 


মন্তব্য