kalerkantho


সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' তিন দস্যু নিহত

বিষ্ণু প্রসাদ চক্রবর্ত্তী, বাগেরহাট    

১১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:৫৪



সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' তিন দস্যু নিহত

সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' বনদস্যু সুমন বাহিনীর তিন সদস্য নিহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের বাগেরহাট জেলার শরণখোলা উপজেলাধীন সুকপাড়া চর এলাকায় দস্যুদের সঙ্গে প্রায় ৪০ মিনিট ধরে 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা ঘটে।

গোলাগুলির পর দস্যুরা পিছু হটলে র‌্যাব সদস্যরা বন তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিন দস্যুর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় বলে জানায় র‍্যাব। এ সময় বন থেকে  দস্যুদের ব্যবহৃত চারটি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র, চারটি ধারালো অস্ত্র এবং ৩৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব সদস্যরা তাৎক্ষণিকভাবে নিহত তিন দস্যুর নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি। তবে নিহত ওই দস্যুরা সুন্দরবনের কুখ্যাত বনদস্যু সুমন বাহিনীর সদস্য বলে র‌্যাব সূত্র জানায়। 

আরো পড়ুন সুন্দরবনে 'বন্দুকযুদ্ধে' ডাকাত নিহত

র‌্যাব বরিশাল ৮ এর কম্পানি কমান্ডার মেজর সোয়েল রানা প্রিন্স জানান, একদল দস্যু সুন্দরবনে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে- এমন খবর পেয়ে র‌্যাব সদস্যরা বুধবার রাতে সুন্দরবনে অভিযান শুরু করেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের সুকপাড়া চর এলাকায় বনের মধ্যে সন্দেহভাজন কয়েকজনকে ঘোরাফেরা করতে দেখেন। এ সময় তাদের পরিচয় জানতে চাইলে বনের ভেতর  থেকে র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করা হয়। এ সময় র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালান।

কম্পানি কমান্ডার মেজর সোয়েল রানা প্রিন্স আরো জানান, প্রায় ৪০ মিনিট ধরে গোলাগুলির একপর্যায়ে দস্যুরা পিছু হটলে বন তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিন দস্যুর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ সময় বন থেকে দস্যুদের ব্যবহৃত দুটি বিদেশি বন্দুক, একটি কাটারাইফেল, একটি পাইপগান, চারটি দেশি তৈরি ধারারো অস্ত্র এবং ৩৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

আরো পড়ুন সুন্দরবনে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু মোক্তার নিহত

কম্পানি কমান্ডার মেজর সোয়েল রানা প্রিন্সের দেওয়া তথ্যমতে, নিহত ওই তিন দস্যু সুন্দরবনের কুখ্যাত বনদস্যু সুমন বাহিনীর সক্রিয় সদস্য। তবে তাৎক্ষণিকভাবে র‌্যাব তাদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি। নিহত দস্যুদের মৃতদেহ এবং অস্ত্র ও গুলি শরণখোলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে র‌্যাবের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে।

র‌্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বনদস্যু সুমন বাহিনীর সদস্যরা সুন্দরবনে জেলেদের নৌকা ও ট্রলারে ডাকাতি করে জাল,মাছসহ মালামাল লুট করে নিচ্ছে। এ ছাড়া দস্যুরা জেলেদের অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত মঙ্গলবার ভোরে সুন্দরবনের শরণখোলা উপজেলাধীন কাতিয়ার খালে নৌ পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু ফরিদ শেখ নিহত হন। 


মন্তব্য