kalerkantho


শাশুড়ি হত্যায় পুত্রবধূসহ দুইজনকে যাবজ্জীবন

ঝালকাঠি প্রতিনিধি    

১১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৫:৫৪



শাশুড়ি হত্যায় পুত্রবধূসহ দুইজনকে যাবজ্জীবন

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় পরকিয়ায় বাধা দেওয়ায় শাশুড়িকে হত্যার দায়ে পুত্রবধূ ও তার কথিত প্রেমিককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা, পরিশোধ না করলে আরো ছয় মাসের দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ বজলুর রহমান আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় এ রায় ঘোষণা করেন।

আরো পড়ুন সাবেক দুই কর্মকর্তার সম্পদের তথ্য অনুসন্ধান করতে চান হাইকোর্ট 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন কুলসুম বেগম ও তাঁর কথিত প্রেমিক কেফায়েত উল্লাহ।

মামলার বিবরণে জানা যায়, কাঁঠালিয়া উপজেলার জয়খালী গ্রামের আবুল কালাম ব্যবসার কাজে ঢাকায় থাকেন। এ সুযোগে তাঁর স্ত্রী কুলসুম বেগম প্রতিবেশী কেফায়েত উল্লাহর সঙ্গে পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি কুলসুমের শাশুড়ি রিজিয়া বেগম জানতে পারায় উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ২০০৫ সালের ১২ এপ্রিল রাতে পুত্রবধূ কুলসুম ও তার প্রেমিক কেফায়েত উল্লাহ শ্বাসরোধে শাশুড়িকে হত্যা করে লাশ বাড়ির পাশের একটি ডেবায় ফেলে দেন।

আরো পড়ুন পুলিশকে শৃঙ্খলা বাহিনী হিসেবে প্রমাণ করতে হবে: আইজিপি 

পরের দিন ডোবা থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় ১৩ এপ্রিল কুলসুম বেগমের মেয়ে রাজিয়া আক্তার বাদী হয়ে মা এবং মায়ের কথিত প্রেমিকের বিরুদ্ধে কাঁঠালিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

 


মন্তব্য