kalerkantho


চাঁদপুরবাসীকে চাঁদমুখ বলে সম্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

১১ জানুয়ারি, ২০১৮ ২০:৩৭



চাঁদপুরবাসীকে চাঁদমুখ বলে সম্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

চাঁদপুরে তৃণমূলের সাধারণ মানুষের সাথে ভিডিও কনফারেন্স করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় চাঁদপুরবাসীকে তিনি চাঁদমুখ বলে সম্বোধন করে তার শৈশবে স্টিমারযোগে পদ্মা-মেঘনা ঘুরে বেড়ানোর নানা স্মৃতি তুলে ধরেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া উন্নয়ন মেলা উদ্বোধনের আগে প্রধানমন্ত্রী সেখানে উপস্থিত জেলার হাইমচরের মৎস্যজীবী মানিক দেওয়ান ও সদর উপজেলার কৃষক মিজানুর রহমানের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলেন। 

এই দুইজনের কথা শুনে প্রধানমন্ত্রী বেশ হাস্যরসে মেতে উঠেন এবং চাঁদপুর নিয়ে তার ভাবনার কথা বলেন। এসময় তিনি বলেন, চাঁদপুরের সাথে আমার শৈশবের অনেক স্মৃতি জড়িত। তাই চাঁদপুরের মানুষজন আমার খুব আপনজন। এই জেলার আরো উন্নয়নে সবধরণের উদ্যোগ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন তিনি। 

প্রধানমন্ত্রী মত্স্যজীবীদের ভাগ্যোন্নয়ন এবং তাদের পরিবারের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য সবধরণের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন। এছাড়া কৃষকদের নিয়ে আরো কিছু পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। একই সাথে চাঁদপুরকে পর্যটন সম্ভাবনা এবং নৌ-পথ শাসন করে স্বাভাবিক নৌযান চলাচল, রূপালি সম্পদ ইলিশ রক্ষায় নানা পদক্ষেপের কথা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  

এর আগে জেলার বিভিন্ন উন্নয়নের চিত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে উপস্থাপন করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক আব্দুস সবুর মন্ডল। চাঁদপুর স্টেডিয়ামে তিন দিনব্যাপি শুরু হওয়া এই উন্নয়ন মেলায় সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ওচমান গনি পাটোয়ারীসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা এবং স্বর্ব স্ততরের মানুষজন উপস্থিত ছিলেন।

আজ বৃহস্পতিবার থেকে সারাদেশে একযোগে এই উন্নয়ন মেলা শুরু হলেও প্রধানমন্ত্রী চাঁদপুরসহ পাঁচটি জেলায় ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন। চাঁদপুর স্টেডিয়ামে এই উন্নয়ন মেলায় সরকারি-বেসরকারি এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে ৮৫টি স্টল স্থান পেয়েছে। মেলা চলবে আগামী শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত।

 


মন্তব্য