kalerkantho


আলমারিতে মিলল নিখোঁজ শিশুর লাশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১২:১৩



আলমারিতে মিলল নিখোঁজ শিশুর লাশ

পাবনার ঈশ্বরদীতে নিজ বাড়ি থেকে দেড় বছরের শিশুকন্যা আতিকা জান্নাত চুরি হয়নি। ওই বাড়ির আলমারির ভেতর থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গতকাল শনিবার রাত ১১টার দিকে ঈশ্বরদী শহরের অরনকোলা নিজ বাড়ির আলমারির ভেতর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

চুরি হয়ে যাওয়া শিশুটির লাশ কীভাবে আলমারির ভেতর পাওয়া গেল সে রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ। আতিকা হত্যাকাণ্ডে তার বাবা ও দাদা-দাদি জড়িত বলে ধারণা করছে পুলিশ।

আতিকার বাবার নাম আশরাফুল ইসলাম। শহরের অরনকোলা পশুহাট এলাকায় ফটোস্ট্যাট ব্যবসায়ী তিনি। কন্যা সন্তান জন্ম দেওয়ায় শিশুটির বাবা এই নির্মম কাজটি করেছেন বলে পুলিশ তাদের ধারণার কথা জানিয়েছে। গত বছরের ৫ ডিসেম্বর আতিকা জন্মগ্রহণ করে।

আরো পড়ুন দোহারে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে নিহত ১ 

আতিকার মা নিশি খাতুন কান্নাজড়িত কণ্ঠে  জানান, মেয়েটির বয়স মাত্র দেড় বছর। তিনি ঘরের খাটে আতিকাকে  শুইয়ে রেখে ছাদে গিয়েছিলেন। ঘণ্টাখানেক পর ছাদ থেকে এসে দেখতে পান বাচ্চাটি কোথাও নেই। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে পুলিশকে জানান তিনি।

আরো পড়ুন যশোরে অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের লাশ উদ্ধার 

গতকাল শনিবার সন্ধ্যার পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন  পাবনার পুলিশ কর্মকর্তা জিহাদুল কবীর। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) জহুরুল হক, ঈশ্বরদী থানার ওসি আজিম উদ্দিন বাড়ির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। একপর্যায়ে তাদের সন্দেহ হলে বাসাটি তল্লাশি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ সময় বাড়ির আলমারির ভেতর থেকে আতিকার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী থানার ওসি আজিম উদ্দিন বলেন, 'পাষণ্ড বাবা ও দাদা-দাদিকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে আসামিদের পাবনা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।' 


মন্তব্য