kalerkantho


বাগমারায় চাঁদা আদায়কারীদের হামলায় এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৯:৫১



বাগমারায় চাঁদা আদায়কারীদের হামলায় এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ আহত ১০

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভা এলাকায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে অবৈধভাবে চাঁদা আদায়কারীদের হামলায় ৭ এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। আজ শনিবার দুপুরে এ ঘটনাটি ঘটে। এদিকে এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আহতরা হলেন- তাহেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী আশিকুর রহমান(১৬), আতিকুর রহমান, সিজানুর রহমান, দীপক কুমার রায়, সাকিকুল ইসলাম, বিটল কুমার, স্বজল আহম্মেদ, অটো চালক ফিরোজ আহম্মেদ এবং চাঁদা আদায়কারী শাহীন আলম ও মানিকুল্লাহ। 

আহতদের স্বজনরা জানান, আজ দুপুরে এসএসসি পরীক্ষা শেষে তাহেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীরা অটোরিকশাযোগে বাড়ি ফিরছিল। তাদের বহনকৃত অটোরিকশাটি উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভার ব্র্যাক মোড়ে পৌঁছালে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকে চাঁদা আদায়কারী শাহীন আলম অটোরিকশাটির গতিরোধ করে চাঁদা দাবি করে। অটোচালক ফিরোজ তাদের দাবিকৃত চাঁদার চেয়ে কম টাকা দিতে রাজি হয়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির জের ধরে অটোরিকশাচালক ফিরোজের সঙ্গে চাঁদা আদায়কারী শাহিনের হাতাহাতি শুরু হয়। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হাতাহাতির এক পর্যায়ে পরীক্ষার্থীরা উভয়কে থামানোর চেষ্টা করে। কিন্তু চাঁদা আদায়কারী শাহিনের সঙ্গে মানিকুল্লাহ যোগ হয়ে পরীক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে। এতে ৭ পরীক্ষার্থী আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। এরপর থেকে স্থানীয় এবং চাঁদা আদায়কারীদের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে বাগমারা থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গেলে চাঁদা আদায়কারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
 
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ বলেন, রাস্তায় দাঁড়িয়ে চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে ভবানীগঞ্জ বাজারে মারামারির ঘটনা ঘঠেছে। ওই ঘটনায় কয়েকজন পীক্ষার্থী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়েছে। অভিযোগ পেলেই তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য