kalerkantho


বোয়ালমারীতে পুকুরে বিষ দিয়ে বিপুল পরিমাণ মাছ নিধন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৯ মার্চ, ২০১৮ ২২:১৫



বোয়ালমারীতে পুকুরে বিষ দিয়ে বিপুল পরিমাণ মাছ নিধন

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার গুনবহা ইউনিয়নের দরিহরিহর নগর গ্রামে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে একই গ্রামের মো. মনির শেখের দুটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে বিপুল পরিমাণ মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রবিবার রাতের এ ঘটনায় তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন মনির শেখ।  

ক্ষতিগ্রস্ত মনির শেখ জানান, গত পাঁচ বছর ধরে একই গ্রামের মাহতাব শেখ, ইদ্রিস শেখ, গফফার শেখ ও সুশান্ত ভট্টাচার্যের কাছ থেকে এক একর ২০ শতাংশ জমির দুটি পুকুর বার্ষিক ৬০ হাজার টাকায় বন্দোবস্ত নিয়ে রুই, কাতলা, সিলভার কাপসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করছি। গতকাল রবিবার রাতে পূর্ব শক্রতার জেরে প্রতিপক্ষ একই গ্রামের হান্নান ও সাজ্জাদ দুই ভাই মিলে ওই পুকুরে বিষ ঢেলে দিলে আজ সোমবার সকালে মাছ মরে ভেসে ওঠে।

তিনি বলেন, জাগরনী চক্র, পল্লী প্রগতি সংস্থা ও গ্রামীণ ব্যাঙ্ক থেকে দুই লাখ ৬০ হাজার টাকা ঋণ ও আমার পরিবারের কাছ থেকে আড়াই লাখসহ মোট পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে মাছ চাষ করেছি। আমার অনেক বড় ক্ষতি হয়ে গেল।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হান্নান শেখ বলেন, মনির শেখের সাথে আমাদের কোনো শক্রতা নেই। তার পুকুরে কে বা কারা বিষ দিয়েছে তা আমি জানি না।

বোয়ালমারী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সুদীপ বিশ্বাস বলেন, পুকুরে বিষ ঢেলে মাছ মেরে ফেলার খবর পেয়ে আমরা সেখানে গিয়েছিলাম। আমরা পরীক্ষা করে দেখেছি পুকুরের পানিতে অক্সিজেন ও পি এইচের পরিমাণ  কমে গেছে। এর ফলে  ফলে মাছ মরে যেতে পারে। 

তিনি বলেন, আবার কেউ যদি পুকুরে গ্যাসের ট্যাবলেট ফেলে তাতেও অক্সিজেন ও পিএইচ এর পরিমাণ কমে মাছ মরে যেতে পারে।

বোয়ালমারী থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান বলেন, এ ব্যাপারে কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেব।



মন্তব্য