kalerkantho


ফরিদপুরে বাবাকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার আসামি ছেলে গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:৪৭



ফরিদপুরে বাবাকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার আসামি ছেলে গ্রেপ্তার

মোটরসাইকেল না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে পেট্রল ঢেলে বাবাকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার আসামি ছেলে ফারদীন হুদা মুগ্ধকে অবশেষে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গতকাল সোমবার রাতে ফরিদপুরের কোতয়ালী থানা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে রাজধানী ঢাকার জিগাতলার একটি বাসা থেকে মুগ্ধকে গ্রেপ্তার করে। পরে আজ মঙ্গলবার তাকে কোতয়ালী থানায় আনা হয়।

পুলিশ ও মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, শহরের কমলাপুর বটতলা নিবাসী ব্যবসায়ী রফিকুল আলম পিন্টুর একমাত্র ছেলে মুগ্ধ দীর্ঘদিন ধরে মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিল। মোটরসাইকেল না পেয়ে ক্ষুব্ধ মুগ্ধ ২০১৬ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে শোবার ঘরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে ঘুমন্ত অবস্থায় তার বাবা পিন্টু অগ্নিদগ্ধ হয়। স্বামীকে রক্ষা করতে গিয়ে স্ত্রী সিলভিয়াও অগ্নিদগ্ধ হয়। তাদের প্রথমে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে পিন্টুর অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২১ সেপ্টেম্বর ভোরে পিন্টু মারা যায়।

এ ঘটনায় পিন্টুর ভগ্নিপতি আকরামউদ্দিন বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় মুগ্ধকে একমাত্র আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার পর থেকে মুগ্ধ পলাতক ছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গতকাল সোমবার রাতে কোতয়ালী থানা পুলিশ ঢাকার  জিগাতলা থেকে মুগ্ধকে গ্রেপ্তার করে কোতয়ালী থানায় নিয়ে আসে। 

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কোতয়ালী থানার ওসি এএফএম নাসিম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মুগ্ধ তার বাবাকে হত্যার কথা অকপটে স্বীকার করেছে। 

তিনি বলেন, মুগ্ধকে আদালতে সোপর্দ করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।


মন্তব্য