kalerkantho


ফরিদপুরে ভিজিএফ কার্ড বিতরণ নিয়ে দু'পক্ষে সংঘর্ষ, আহত ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৪ জুন, ২০১৮ ১৮:২৭



ফরিদপুরে ভিজিএফ কার্ড বিতরণ নিয়ে দু'পক্ষে সংঘর্ষ, আহত ৫

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নে ভিজিএফের কার্ড বিতরণ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে সোনাপুর বাজারে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতাল ও নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পরে স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কার্ডধারীদের মাঝে চাল বিতরণ করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আজ সকালে সোনাপুর ইউনিয়নে ভিজিএফ কার্ড বিতরণ নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান খায়রুজ্জামান বাবু মোল্লা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবু জাফর মোল্লার সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জের ধরে উভয় পক্ষের শতাধিক সমর্থক বেলা ১১টার দিকে ঢাল-কাতরা, সড়কি-ভেলা, রামদা ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন ও সালথা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে চাল বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়।

এই সংঘর্ষে ইকরাম শেখ (৪০), নয়ন শেখ (২০), মুক্তার মোল্যা (৩৮), জামাল মোল্যা (৪৮), কুদ্দুছ মোল্যা (৫০) আহত হয়। আহতদের ফরিদপুর সদর হাসপাতাল ও নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সোনাপুর ইউপি চেয়ারম্যান খায়রুজ্জামান বাবু বলেন, এবার ইউনিয়নে দুস্থদের জন্য দুই হাজার ১৩৬টি ভিজিএফ কার্ড বরাদ্দ এসেছে। বরাদ্দকৃত কার্ড ইউপি সদস্যদের মাধ্যমে দুস্থদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। আজ সকালে চাল বিতরণ করার সময় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবু জাফর মোল্লার লোকজন কিছু কার্ড দাবি করে। কার্ড দিতে না পারায় এ সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। 

এ প্রসঙ্গে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবু জাফর মোল্লা বলেন, আমার সমর্থক কয়েক শ’ হতদরিদ্র মানুষকে ইউপি চেয়ারম্যান ভিজিএফ কার্ড দেইনি। এ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে সালথা থানার ওসি মো. দেলোয়ার হোসেন খান বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোহাম্মাদ মোবাশ্বের হাসান বলেন, বিষয়টি নিরসনের পরই ভিজিএফের চাল বিতরণ করা হয়েছে।


মন্তব্য