kalerkantho


সরিষাবাড়ীতে প্রতিপক্ষের লাথিতে বৃদ্ধার মৃত্যু

জামালপুর প্রতিনিধি   

২১ জুন, ২০১৮ ২৩:২৮



সরিষাবাড়ীতে প্রতিপক্ষের লাথিতে বৃদ্ধার মৃত্যু

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলায় বাড়ির যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লাথিতে জমিলা বেগম (৬৫) নামের একজন বৃদ্ধার ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের ডোয়াইল পশ্চিমপাড়া গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেনের স্ত্রী। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ডোয়াইল পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিক্ষুব্ধ জনতা ওই বৃদ্ধাকে হত্যাকারী লাল মিয়া ওরফে লালুকে হাতেনাতে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।  

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, ডোয়াইল ইউনিয়নের ডোয়াইল পশ্চিমপাড়া গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেনের সঙ্গে প্রতিবেশী লাল মিয়াদের বাড়িতে যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে দীর্ঘ দিনের বিরোধ রয়েছে। ওই বিরোধের জের ধরে আজ বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে লাল মিয়া বৃদ্ধা জমিলা বেগমকে জোরে লাথি মারলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। 

এ সময় প্রতিবাদ করতে গেলে লাল মিয়ার লোকজনরা নিহত জমিলা বেগমের স্বামী মোয়াজ্জেম হোসেন (৭০) ও প্রতিবেশী ছোহরাব আলীকে (৬০) মারধর করলে তারা দু'জন গুরুতর আহত হন। তাদেরকে সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

এ ঘটনায় মৃত জমিলা বেগমের বিক্ষুব্ধ স্বজনরা একই গ্রামের মৃত কাজেম উদ্দিনের ছেলে লাল মিয়াকে হাতেনাতে আটক করে সরিষাবাড়ী থানায় সোপর্দ করেছে। ঘটনার পর থেকে লাল মিয়ার স্ত্রী হালিমা বেগমসহ বাড়ির অন্যান্যরা গা ঢাকা দিয়েছে। পুলিশ মৃত জমিলা বেগমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।   

এ প্রসঙ্গে সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল ইসলাম খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘লাল মিয়াকে থানায় আটক রাখা হয়েছে। মৃত জমিলা বেগমের ছেলে জহুরুল ইসলাম বাদী হয়ে লাল মিয়াসহ কয়েকজনকে আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।’  



মন্তব্য