kalerkantho


প্রাচ্য প্রকাশনীতে আল হাদীর নতুন কাব্য গ্রন্থ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ আগস্ট, ২০১৭ ১৫:৪৮



প্রাচ্য প্রকাশনীতে আল হাদীর নতুন কাব্য গ্রন্থ

শ্রবণ অনুভূতি -৩, প্রাচ্য প্রকাশনী প্রকাশ করল আল হাদীর নতুন কাব্য গ্রন্থ। সংগীত শ্রবণের পর এক নতুন অনুভূতি এবং তারপরে উক্ত সংগীতের ইউটিউব লিংকের তালিকা।

বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে নির্মলেন্দু গুণের প্রেমাংসুর রক্ত চাই কবিতার চরণ বিশেষ। এ কাব্যে আল হাদী সহজভাবে চোখে পড়ার মত উপলব্ধি করেছেন -মনের উপার্জন যত মনের সংযম। আর এক স্থানে বলেছেন -বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার জন্য যেমন চিন্তার সঞ্চয় থাকা প্রয়োজন। সরল নিসর্গ ব্যবহারে বলেছেন -গভীর রাতের সাথে বেলে জোছনারা যেমন কেঁদে গিয়েছে গিটারে। । ক্ষতবিক্ষত ইদলিব শহরেও নেমে এসেছে শহরের শান্তি।

এ রকম কিছু দুর্লভ অনুষঙ্গ নিয়ে আল হাদী বয়ে যেতে চেয়েছেন তাঁর এ গ্রন্থের দায়ভার। বইটি পাওয়া যাচ্ছে - সন্ধি পাঠ, আজিজ সুপার মার্কেট, শাহবাগ -ঢাকা।   আল হাদী প্রচণ্ড ধৈর্য সহকারে যে সকল সহজ সত্য পাঠকের সাথে ভাগাভাগি করে তিনি বসবাস করতে চেয়েছেন তাঁর এই গ্রন্থে, যেমন -প্রেমের চঞ্চলতা পৃথিবীর পচনশীলতা থামিয়ে দিয়েছে।

আবার তিনি নিজেকে প্রশ্ন করেছেন -কান্নায় যতটা শক্তি, মানুষ এ শক্তি আর কোথায় পাবে? ভাগ বিন্যাসের বোধে আল হাদীর এ কাব্যগ্রন্থ সাহিত্যে এক নতুন ধারা অনুযোগ আকারে হলেও ইতোমধ্যে তিনি যোগ করতে সার্থক হয়েছেন।  

সহজভাবে তিনি পরিষ্কার দেখেছেন তাঁর এ কাব্যে- পাখিটা উড়ে যেয়ে যেমন বৃক্ষের গায়ে ভর ছেঁড়ে দেয়, বৃক্ষ কেঁপে যায় প্রার্থনায়। এরকম আরও অনেক অনেক বিষয় তিনি অনুভব করেছেন। সর্বমোট ২৩ জন সংগীত শিল্পীর সংগীতের মধ্য থেকে আল হাদী তাঁর পছন্দের সংগীত নিয়ে অনুভূতি ব্যক্ত করেছেন এখানে। ভিন্ন ধারার অর্থাৎ যুগপৎ সংগীত ও অনুভূতি বিষয়ক এ গ্রন্থ সহজেই পাঠকগণকে ভাবতে বা অনুভব করতে সাহায্য করবে বলে মনে করেন এ গ্রন্থের প্রকাশক।

 


মন্তব্য