kalerkantho


সংস্কৃতি

ঢাকা আর্ট সামিট শুরু ২ ফেব্রুয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৩:০৭



ঢাকা আর্ট সামিট শুরু ২ ফেব্রুয়ারি

দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় শিল্প আয়োজন ঢাকা আর্ট সামিট শুরু হচ্ছে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি। রাজধানী ঢাকায় চতুর্থবারের মতো আয়োজন হতে যাওয়া এই সামিটে অংশ নেবেন ৩৫টি দেশের তিন শতাধিক শিল্পী। শিল্পকলা ও স্থাপত্যকে নতুন আঙ্গিকে সর্বসাধারণের মাঝে তুলে ধরা হবে ৯ দিনের এই শিল্প সম্মেলনে।

সামদানি আর্ট ফাউন্ডেশনের আয়োজনে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালায় এই সামিট চলবে ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বরাবরের মতো এবারও আর্ট সামিট আয়োজনে সহযোগিতা করছে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, তথ্য মন্ত্রণালয়, শিল্পকলা একাডেমি, বাংলাদেশ টু্যরিজম বোর্ড, বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট অথরিটি ও জাতীয় জাদুঘর।

শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে গতকাল বৃহস্পতিবার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে লিখিত বক্তব্য দেন ঢাকা আর্ট সামিটের পরিচালক নাদিয়া সামদানি। এ ছাড়া বক্তব্য দেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, একাডেমির চারুকলা বিভাগের পরিচালক ও উৎসবের কিউরেটর মো. মনিরুজ্জামান, সামদানি আর্ট ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি রাজীব সামদানি এবং আর্ট সামিটের পৃষ্ঠপোষক গোল্ডেন হার্ভেস্টের পরিচালক মহিউজ সামাদ চৌধুরী।

নাদিয়া সামদানি বলেন, দক্ষিণ এশীয় শিল্পের নতুন এক দিগন্ত উন্মোচন করতে এই আর্ট সামিটের আয়োজন করা হয়েছে। এবার প্রথমবারের মতো সামিটে অংশ নিচ্ছে ইরান ও তুরস্ক। সব মিলিয়ে ৩৫টি দেশের তিন শতাধিক শিল্পী এই সামিটে নিজেদের কাজ নিয়ে হাজির হবেন। সেই সঙ্গে সম্ভাবনাময় শিল্পকলার উন্নয়ন সামনে রেখে সামিটে ১২০ জনের অধিক বক্তার অংশগ্রহণে থাকছে ১৬টি প্যানেল আলোচনা ও দুটি সিম্পোজিয়াম।

রাজীব সামদানি বলেন, এবারও প্রদান করা হবে সামদানি আর্ট অ্যাওয়ার্ড; যার জন্য এরই মধ্যে ১১ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক বিচারকমণ্ডলীর বিচারে সেখান থেকে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।

শিল্পকলা একাডেমির সার্বিক সহযোগিতায় ২০১২ সাল থেকে সামদানি আর্ট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শুরু হয় দ্বিবার্ষিকভাবে অনুষ্ঠিত ঢাকা আর্ট সামিটের পথচলা। ২০১৬ সালে চার দিনের সামিটের তৃতীয় আসরটি উপভোগ করে এক লাখ ৩৮ হাজার স্থানীয় দর্শক। এ ছাড়া অংশ নেয় সহস্রাধিক বিদেশি দর্শনার্থী।


মন্তব্য