kalerkantho


ডিম বিক্রির নামে হয়রানি করা হচ্ছে, অভিযোগ ক্রেতাদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ১৪:১৪



ডিম বিক্রির নামে হয়রানি করা হচ্ছে, অভিযোগ ক্রেতাদের

৩ টাকা দামে ডিম কিনতে এসে আয়োজকদের ওপর নিজেদের ক্ষোভ ঝাড়লেন ক্রেতারা। কারণ আজ সকাল ১০ টায় ডিম বিক্রি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিক্রি বন্ধ করে রেখেছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ।

এমনকি বিক্রি স্থানে অতিরিক্ত ভিড় হওয়ায় শতশত ডিম ভেঙে যায়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  

ডিম কিনতে আসা আবুল কাশেম নামে এক ব্যক্তি বলেন, 'আমাদের এমন হয়রানি করার মানে হয় না। বিক্রির আগে কত প্রচারণা। এখন শুরু হয়নি ডিম বিতরণ কার্যক্রম। ডিম বিক্রির নামে এসব নাটক, ভন্ডামী ছাড়া কিছু নয়। ' 

রায়হান নামে এক যুবক বলেন, প্রস্তুতি ছাড়া বাংলাদেশের মতো জায়গায় এভাবে ডিম বিক্রির প্রচারণা করা উচিত হয়নি। ফেসবুক, টিভি, অনলাইন পত্রিকা, দৈনিক পত্রিকাসহ কোনো মাধ্যমে প্রচার করতে বাদ রাখে নাই। আর আজকে হয়রানি করা হচ্ছে।

  

এ ব্যাপারে আয়োজক কমিটির সদস্য শ্যামলী পোল্ট্রি লিমিটেড হেড অব মার্কেটিং নজরুল ইসলাম বলেন, আজকে আর বিক্রি হবে না। আমাদের ২০ হাজার ডিম বিক্রির টার্গেট ছিলো। কিন্তু ভাবতে পারি নাই এতো লোক হবে। এখন বিক্রি করতে গেলে পরিস্থিতি খারাপ হবে। সাংঘর্ষিক পরিস্থিতি দাঁড়াবে। ম্যানেজমেন্ট যে কোনো সময় ঘোষণা দিবে ডিম বিক্রি হবে না।  

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সদস্য বলেন, আয়োজনে ঘাটতি থাকায় পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছ। ২ কোটি মানুষের রাজধানীতে  ২০ হাজার ডিম বিতরণ বোকামি সিদ্ধান্ত। এখন পুলিশ ছাড়া পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না।  

উল্লেখ্য, বিশ্ব ডিম দিবস উপলক্ষে রাজধানীর খামারবাড়িতে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে বাংলাদেশ পোলট্রি ইন্ডাস্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল (বিপিআইসিসি) ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর ৩ টাকা ধরে ডিম বিক্রি করার উদ্যোগ নেয়। সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত প্রতিটি ডিম বিক্রি করার কথা ছিলো। কিন্তু বেলা সোয়া ১১টার পর
আচমকাই ডিম বিক্রি বন্ধ করে দেয় বিপিআইসিসি ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর।   


মন্তব্য