kalerkantho


সাভারে মতবিনিময় সভা

প্রতিবন্ধীদের জন্য ইউপির বাজেটে বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২০:২২



প্রতিবন্ধীদের জন্য ইউপির বাজেটে বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব

ইউনিয়ন পরিষদের বাজেটে প্রতিবন্ধীদের জন্য বরাদ্দ রাখার পরামর্শ জানিয়ে সেভ দ্য চিলড্রেন-এর সহযোগিতায় এবং উপজেলা প্রশাসন ও ভিলেজ অ্যাডুকেশন রিসোর্স সেন্টার (ভার্ক)-এর উদ্যোগে আয়োজিত একীভূত শিক্ষা প্রসারে সমন্বিত উদ্যোগের অগ্রগতি ও সাফল্য নিয়ে সাভারে একটি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

উপজেলা শিক্ষা অফিসার তাপশিরা ইসলাম লিজার সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রণব কুমার ঘোষ। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো: জিয়াউর রহমান, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার খালেদা জাহান আক্তার, ভার্কের প্রশিক্ষণ ও যোগাযোগ সেকশন-এর পরিচালক সুভাষ চন্দ্র সাহা ও সেভ দ্য চিলড্রেন সিবিআর অ্যান্ড ইনক্লুসিভ অ্যাডুকেশনের ম্যানেজার নাজমুল ইসলাম।

মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য মাত্রায় প্রাথমিক শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ কাঙ্খিত সাফল্য লাভ করেছে। কিন্তু এখনও অনেক শিশু দারিদ্রতা, ভৌগোলিক অবস্থান, সামাজিক বৈষম্য এবং বিভিন্ন কারণে প্রাথমিক শিক্ষার অধিকার থেকে বঞ্চিত। এখনও বাংলাদেশে ২০ শতাংশ প্রতিবন্ধী শিশু প্রাথমিক শিক্ষার আওতার বাইরে রয়ে গেছে। প্রতিবন্ধী শিশুরা পরিবারে ও সমাজে বিভিন্নভাবে অবহেলার শিকার হয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রে তারা শিক্ষাসহ অন্যান্য মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত থেকে যায়।  

তারা আরো বলেন, সেভ দ্য চিলড্রেন কারিগরী সহযোগিতায় বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন ও ভার্ক বেলকুচি, সাভার ও করিমগঞ্জ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে হোপ প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করছে যার সর্বপরি উদ্দেশ্য হচ্ছে প্রতিবন্ধী ও ঝরে পড়া শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করা।  

সেমিনারে উপস্থিত অংশগ্রহণকারীগণ যে সকল পরামর্শ দিয়েছেন তা হলো- সাভার উপজেলার সকল ইউনিয়ন ও পৌরসভার সকল প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করা, শতভাগ শিশুকে স্কুলের আওতায় নিয়ে আসা, পিছিয়ে পড়া শিশুদের নিয়ে কাজ করা, কেন শিশুরা লেখাপড়া করে না এবং ড্রপআউট হচ্ছে সে বিষয়ে গভেষণা করা, ইউনিয়ন প্রতিবন্ধী সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে শিশুদের সেবা প্রদান, বিদ্যালয় বহির্ভূত ও প্রতিবন্ধী  শিশুদের  প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি করানো, উপস্থিতি বৃদ্ধিকরণে সহযোগিতা করা এবং ইউনিয়ন প্রতিবন্ধী সেবা কেন্দ্র স্থায়ী করার লক্ষ্যে তহবিল গঠনে কাজ করা ইত্যাদি।

 


মন্তব্য