kalerkantho


উত্তরবঙ্গ ব্যাংকার্স কল্যাণ ফোরামের গুণী-ব্যাংকার সম্মাননা ও আলোচনা সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ২৩:৫৪



উত্তরবঙ্গ ব্যাংকার্স কল্যাণ ফোরামের গুণী-ব্যাংকার সম্মাননা ও আলোচনা সভা

ছবি: কালের কণ্ঠ

রাজধানীর বিসিআইসি অডিটোরিয়ামে আজ মঙ্গলবার ঢাকাস্থ উত্তরবঙ্গ ব্যাংকার্স কল্যাণ ফোরাম আয়োজিত গুণী-ব্যাংকার সম্মাননা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়া, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ ও সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ। এতে সভাপতিত্ব করেন রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এবং ঢাকাস্থ উত্তরবঙ্গ ব্যাংকার্স কল্যাণ ফোরামের আহবায়ক মো. আতাউর রহমান প্রধান।

সভায় গুণী ব্যাংকার বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর চৌধুরী, ইসলামী ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আবদুল হামিদ মিঞা, রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আতাউর রহমান প্রধান, আইসিবির এমডি কাজী ছানাউল হক এবং জনতা ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আব্দুছ ছালাম আজাদকে সম্মাননা ক্রেস্ট এবং উত্তেলীয় পরিয়ে সম্মানানা প্রদান করেন ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডেপুটি স্পিকার গুণী ব্যাংকারদের উদ্দেশে বলেন, যদিও নেতৃত্বে আমরা কিন্তু কর্তৃত্ব আপনাদের। আপনারা শুধু উত্তরবঙ্গের জন্য নয় বাংলার সকল জনপদের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য কাজ করেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ গুণী ব্যাংকারদের অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, সারাদেশ এখন শীতে কাপছে বিশেষ করে রংপুর অঞ্চলে তীব্রতা সবচেয়ে বেশি তাই উত্তরবঙ্গের শীতার্তদের কম্বল দিয়ে তাদের পাশে থাকার আহবান জানান। সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ তার বক্তব্যেও শীতার্তদের সহায়তা করার জন্য ব্যাংকারদের প্রতি আহবান জানান। এতে বক্তব্য রাখেন সম্মাননা পাওয়া ব্যাংকাররাও।

সভার শুরুতে উত্তরবঙ্গ ব্যাংকার্স কল্যাণ ফোরামের আহবায়ক ও রূপালী ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আতাউর রহমান প্রধান বলেন, আজকে যখন আমরা এই অনুষ্ঠান করছি তখন উত্তরবঙ্গের মানুষ শীতে কাঁপছে, তারা এত শীত কখনো মোকাবেলা করেনি ২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা। কাজেই প্রধান কাজ হচ্ছে শীতবস্ত্র প্রেরণ এবং শীতার্তদের সহায়তায় এগিয়ে আসা।

তিনি আরো বলেন, এটি একটি অরাজনৈতিক সংগঠন, পারস্পরিক সৌহার্দ বৃদ্ধির সংগঠন। সংগঠনের আহবায়ক আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতুর ফলে যে উন্নয়ন হওয়ার সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে তাকে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যেতে হবে উত্তরবঙ্গকে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী বলেন, দেশে-বিদেশে বহু সম্মাননা পেয়েছি তবে আজকের এই সম্মাননা একটু ব্যতিক্রম এবং সবচেয়ে বেশি আনন্দের। কারণ মা ও মাটির কাছ থেকে পেয়েছি এটি। এতে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আবদুল হামিদ মিঞা, আইসিবির এমডি কাজী ছানাউল হক এবং জনতা ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আব্দুছ ছালাম আজাদ।

সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকসহ বিভিন্ন ব্যাংকের ঢাকাস্থ উত্তরবঙ্গের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. সদরুল হুদা।


মন্তব্য