kalerkantho


মেয়েকে নির্দোষ দাবি করলেন এশার বাবা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:৪০



মেয়েকে নির্দোষ দাবি করলেন এশার বাবা

কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগে বহিষ্কৃত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশার বাবা ইসমাইল হোসেন বাদশা বলেছেন, আমার মেয়ে এশার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। সে নির্দোষ।

কবি সুফিয়া কামাল হলে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হয়। হলের মেয়েদের পিটিয়ে রক্তাক্ত করার অভিযোগও পাওয়া যায়। আর অভিযোগ ওঠে এই ঘটনার নেতৃত্ব দেন ইসরাত জাহান এশা।

আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগে বহিষ্কার হওয়ার পর মেয়েকে নিয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে এ মন্তব্য করেন তিনি।

এশার বাবা ইসমাইল হোসেন বাদশা দাবি করেন, আমার মেয়ে এশার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। সে ষড়যন্ত্রের শিকার। ভিসির বাস ভবনে যারা হামলা করে মিথ্যা রটিয়েছে এটাও এমন মিথ্যা অভিযোগ দেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার আগে পুরো বিষয়টি সঠিকভাবে তদন্ত করা দরকার।

ইসরাত জাহান এশা বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এবং কবি সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি। তার বাড়ি ঝিনাইদহে।

অভিযোগ ওঠে কোটা সংস্কারের আন্দোলনে অংশ নেয়ায় মঙ্গলবার রাতে উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী মোর্শেদা আক্তারকে নিজের রুমে ডেকে নিয়ে যান হলের সভাপতি এশা। পরে তাকে মারধর করেন। বলে অভিযোগ ওঠে। একপর্যায়ে মোর্শেদার পা ধারালো বস্তুর আঘাতে কেটে যায় বলে হলের অনেক সাধারণ ছাত্রী অভিযোগ করেন। এছাড়া অপর একজনের মাথায় সেলাই দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগও পাওয়া যায়।

ঘটনার পরই কয়েকশ ছাত্রী এশাকে তার কক্ষে অবরুদ্ধ করে স্লোগান দিতে থাকেন। খবর পেয়ে অন্যান্য হল থেকেও শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে সুফিয়া কামাল হলের সামনে আসেন। এরপরই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং ছাত্রীদের মারধর অভিযোগে ছাত্রলীগ, হল এবং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এশাকে বহিষ্কার করা হয়। এরইমধ্যে এশাকে লাঞ্ছিত করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।



মন্তব্য