kalerkantho


হাটে যাই

ব্যাগে পরিচয়

নতুন বছর, নতুন ক্লাস, একটা কেতাদুরস্ত নতুন ব্যাগও চাই? ব্যাগের খোঁজখবর জানাচ্ছেন জুবায়ের আহম্মেদ

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ব্যাগে পরিচয়

ছবি জাবেদ পাটওয়ারী, মডেল আসিফ মাহমুদ নাহিন

রাজধানীর গুলশান ডিএনসিসি মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, নিউ মার্কেট, মিরপুর, বায়তুল মোকারমসহ এমন কোনো জায়গা নেই, যেখানে ব্যাগের দোকান পাবে না। ফ্যাব্রিকস থেকে লেদার, তথা চামড়ার ব্যাগ শক্তপোক্ত। টেকেও অনেক দিন। তবে ভালো মানের চামড়ার ব্যাগ কিনতে গুনতে হবে তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকা। পলিয়েস্টারের ব্যাগ হালকা হয়। এ কারণে মাঝামাঝি বাজেটের মধ্যে থাকায় কাপড়ের ব্যাগটাই বেশি চলে। কারণ এটা পরিষ্কার করা সহজ। তবে এখনকার টিনএজারদের বেশি পছন্দ হ্যাপার ও ব্যাকপ্যাক। স্কুলের জন্য হ্যাপার ব্যাগ ব্যবহার করাই ভালো। কারণ এতে বই-খাতা ধরবে বেশি। ধরন অনুযায়ী দাম ১২০০-৩৫০০ টাকা। কিছু হ্যাপারে ল্যাপটপ চেম্বারও থাকে। হ্যাপার ব্যাগে ইয়ারফোন পিন থাকে, যাতে করে ভ্রমণে জার্নিতে থাকার সময় মোবাইল ব্যাগের ভেতরে রেখে গান শোনা যায়। শর্ট ট্যুরের ক্ষেত্রে ফ্যাশনেবল ট্রাভেল ব্যাগ কেনা যায়। এর মধ্যে দেশি ব্র্যান্ডেরগুলো দেড় থেকে দুই হাজার আর বিদেশি ব্র্যান্ডের দাম চার-পাঁচ হাজার টাকা পড়বে। ফেসবুকে ব্যাগ লিখে সার্চ দিলেই মিলবে অনেক ব্যাগ বিক্রেতার পেজ।

যারা নিয়মিত সাইকেল চালাও, তাদের জন্য আছে বাইক ব্যাগ। দাম ১২০ থেকে দেড় হাজার টাকা।

কেনার আগে
১.         বই রাখার পর্যাপ্ত জায়গা হবে কি না দেখে নাও। সুন্দর ডিজাইন দেখেই লাফিয়ে উঠবে না।

 

২.         কাঁধে ঝুলিয়ে পরখ করো, আরামদায়ক কি না। বেল্টের ব্যাক সাইট দেখে নাও।

 

৩.        রানার বড় ও মোটা কি না চেক করো। জিপারটা কয়েকবার খুলে ও বন্ধ করে দেখো। কাপড়ের মান বোঝে, এমন কাউকে সঙ্গে নিলে ভালো।


ম্যাক্স ব্র্যান্ডের সোলার স্কুল ব্যাগটির দাম সাড়ে তিন হাজার টাকা। এটা দিয়ে মোবাইল ফোনে চার্জ দিতে পারবে। দূরে কোথাও ট্যুরে গেলে খুব কাজে আসবে। ব্যাগটি কাপড়ের। ভেতরে ল্যাপটপ ও প্যাড রাখার আলাদা জায়গা আছে। নাম বসানোর নেমপ্লেটও আছে। আছে তিন বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি।


স্কাই ব্যাগস ব্র্যান্ডের ব্যাগটির দাম তিন হাজার সাত শ টাকা। অনলাইনেই অর্ডার দেওয়া যায়। আকার ২২ বাই ১৬ ইঞ্চি। ৩টি চেম্বার আছে। এক বছরের ওয়ারেন্টির সঙ্গে রেইন কাভার ফ্রি।

 


মন্তব্য