kalerkantho


অমিতাভকে এখনো ভালোবাসি: রেখা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ অক্টোবর, ২০১৭ ২৩:৫৭



অমিতাভকে এখনো ভালোবাসি: রেখা

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

মঙ্গলবার ৬৩ বছরে পা দিলেন রেখা, তার একদিন পর ৭৫-এ পা দিলেন অমিতাভ বচ্চন। পর পর দুই সুপারস্টারের জন্মদিন উপলক্ষ্যে ফের তাঁদের পুরনো সম্পর্ক নিয়ে সংবাদমাধ্যমে চর্চা শুরু হয়েছে।

জন্মদিনে রেখা যখন নিরিবিলিতেই দিন কাটালেন, বিগ তখন পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাতে পাড়ি দিলেন মালদ্বীপে। জয়া বচ্চনের সঙ্গে বিয়ের পর বার বার ‘ফ্যামিলি ম্যান’ হিসেবে তাঁর পরিচয় ফুটে উঠলেও রেখার সঙ্গে তাঁর পুরনো সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা শেষ হয়নি এখনো।

রেখার কাছ থেকে কেন সব সময় দূরত্ব বজায় রাখেন অমিতাভ? রেখা কেন এখনো সিঁদুর পরেন, তা নিয়ে রয়েছে বিস্তর জল্পনা। আর বিগ বি'র জন্মদিনে সেরকমই অজানা কিছু তথ্য জানানো হচ্ছে আপনাদের।

ইন্ডিয়া টুডে'র খবর অনুযায়ী, অমিতাভের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে একাধিকবার মুখ খুলেছেন রেখা। স্বীকার করেছেন বিগ বি'র প্রতি তাঁর ভালোলাগার কথা। কিন্তু, অমিতাভ এ বিষয়ে চুপই থেকেছেন। বলা ভালো, রেখার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে সব সময় নিরবতা পালন করেছেন বিগ বি। জয়া বচ্চনও কখনো প্রকাশ্যে বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করেননি।

দো আনজানে সিনেমায় প্রথম বড় পর্দায় একসঙ্গে দেখা গেছে অমিতাভ এবং রেখাকে।

যশ চোপড়ার সিলসিলা সিনেমা থেকে অমিতাভ বচ্চন এবং রেখার সম্পর্ক নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়। শোনা যায়, অমিতাভ বচ্চন, জয়া বচ্চন এবং রেখার জীবনের কিছুটা অংশ ওই সিনেমায় দেখানোর চেষ্টা করেছিলেন পরিচালক যশ চোপড়া।

একটি সাক্ষাৎকারে রেখা জনিয়েছিলেন, তিনি যখন অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতেন, তখন অনেক ক্ষেত্রেই তাঁর অসুবিধা হত। অমিতাভের মতো একজন অভিনেতার সঙ্গে কাজ করা বেশ কঠিন ছিল বলেও জানিয়েছেন রেখা।

দো আনজানে-তে যখন অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ারের কথা হয়, তখন নাকি প্রথমে ঘাবড়ে গিয়েছিলেন রেখা। এমনকী, বিগ বি-কে তখন প্রথমে জয়া বচ্চন (দিদিভাই)-এর স্বামী এবং জয়া বচ্চনের প্রেমিক হিসেবেই জানতেন বলে মন্তব্য করেন রেখা। কারণ ওই সময়, তাঁর আর অন্য কিছু ভাবার পরিসর ছিল না। অমিতাভের সঙ্গে প্রথম অভিনয় করতে গিয়ে বেশ ভয় পেয়েছিলেন বলেও জানিয়েছেন রেখা।

অমিতাভ বচ্চনকে কি কখনো ভালোবেসেছেন রেখা? এমন প্রশ্নের জবাবে ওই সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী স্পষ্ট জানিয়েছিলেন, 'অবশ্যই। এটা বোকা বোকা প্রশ্ন। ' সূত্র: জিনিউজ


মন্তব্য