kalerkantho


বিক্ষোভকারীদের জন্য 'পদ্মাবতী'র বিশেষ প্রদর্শনী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ নভেম্বর, ২০১৭ ১৮:১৮



বিক্ষোভকারীদের জন্য 'পদ্মাবতী'র বিশেষ প্রদর্শনী

ছবিতে রাজপুতদের ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়নি- পদ্মাবতীকে নিয়ে বিক্ষোভ থামাতে ভিডিওবার্তায় বলেছিলেন সঞ্জয় লীলা বনশালি। তাতে কর্ণপাত করতে নারাজ বিক্ষোভকারীরা।

তাঁদের দাবি, ছবি আগে তাঁরা দেখবেন তারপর তা প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে। শোনা যাচ্ছে, বিক্ষুব্ধদের এই দাবি মেনে নিতে যাচ্ছেন সঞ্জয়। সংবাদমাধ্যমের একাংশে প্রকাশ, বিতর্ক থামাতে বিক্ষোভকারীদের জন্য স্পেশাল কমিটির কাছে নাকি ছবি দেখাতে রাজি হয়েছেন তিনি।

মিড ডে’র প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই খবরটি সামনে এনেছেন অখণ্ড রাজপুত সেবা সংঘের জাতীয় সভাপতি আর পি সিং। তিনি জানিয়েছেন, বনশালি ও রাজপুতানা সংগঠনগুলির মধ্যে মধ্যস্থতা করছেন মহাবীর জৈন। শনিবার বনশালির প্রোডাকশন হাউজ়ের সিইও শোভা সন্তের সঙ্গে ফোনে তাঁর কথা বলার ব্যবস্থা করে দেন মহাবীর। শোভা নাকি তাঁকে জানিয়েছেন, সেন্সর বোর্ডের কাছে ছবি যাওয়ার আগে স্পেশাল টিমকে ছবিটি তাঁরা দেখাতে রাজি। চলতি মাসের ১৫ থেকে ১৮ তারিখের মধ্যে এই স্ক্রিনিং হতে পারে।

এদিকে পদ্মাবতী বিতর্কে সিনে দুনিয়ার একাংশকে পাশে পেয়েছেন সঞ্জয়।

ইন্ডিয়াল ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ডিরেক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের (IFTDA) তরফে একটি সভা করা হয়। সঞ্জয়ের পাশে দাঁড়ানোর আবেদন করা হয় সেই সভা থেকে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন অশোক পণ্ডিত, সুধীর মিশ্র সহ আরও কয়েকজন ছবি নির্মাতা। সংগঠনের প্রেসিডেন্ট অশোকবাবু বলেন, পদ্মাবতী ছবিকে নিয়ে যে সব ঘটনা ঘটছে তা কোনওভাবেই কাম্য নয়। একই ঘটনা ঘটেছিল মধুর ভাণ্ডারকরের সঙ্গে। এনিয়ে প্রত্যেকের প্রতিবাদ করা উচিত। কারণ, এই আক্রমণ কেবল পদ্মাবতী ছবির উপর নয়, গোটা সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির উপর।


মন্তব্য